• রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫
ads
সমালোচিত আফরান নিশো

ছবি : সংগৃহীত

শোবিজ

সমালোচিত আফরান নিশো

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১২ জুলাই ২০১৯

কয়েকদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আফরান নিশোকে নিয়ে জোর সমালোচনা চলছে। নিশোও কম যান না। এবার নিজের ফেসবুক পেজে সমালোচকদের কড়া ভাষায় জবাব দিলেন নিশো। তার ভাষ্যমতে, যদি বিনোদনমাধ্যমের কাজ হয় শিক্ষা দেওয়া, তবে দেশের স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রয়োজন কেন? তাই ব্যঙ্গ করে সবাইকে শিক্ষামূলক নাটক বানানোর আহ্বান জানান অভিনেতা আফরান নিশো।

সমালোচনার শুরুটা হয় নাটকের অশ্লীল সংলাপ নিয়ে। কিছুদিন আগে আফরান নিশো ও তানজিন তিশা জুটির ‘এক্স বয়ফ্রেন্ড’ নাটকটি প্রচারিত হয়। এতে দেখা যায় আফরান নিশো তিশাকে বলছেন, ‘শালির ঘরে শালি, একদম নড়বি না। মাইরা ফেলব...শালির ঘরে শালি...’। একই নাটকে ‘ধরাধরি করতে ভালো লাগতেছে? চল ওপরে চল...ধরাধরি করি’-এমন সংলাপও বলতে দেখা গেছে। এ ছাড়াও গত ঈদে প্রচারিত হওয়া একই জুটির আরেকটি নাটক ‘দ্য এন্ডে’ অশ্লীল সংলাপের কারণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আফরান নিশোকে নিয়ে শুরু হয় তুমুল সমালোচনা। অনেকেই মনে করছেন, নিজের জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে এ অভিনেতা যাচ্ছেতাই সংলাপ ব্যবহারে রাজি হচ্ছেন। সামাজিকভাবে এসব সংলাপের প্রভাব নিয়ে বিন্দুমাত্র মাথাব্যথা নেই তার।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আফরান নিশোর কাছে অনেকেই প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন এভাবে-‘আপনার নিজের এসব সংলাপযুক্ত নাটক কি আপনার সন্তানের সামনে বসে দেখতে পারবেন?’

এদিকে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সমালোচকদের কড়া ভাষায় জবাব দেন অভিনেতা আফরান নিশো। সমালোচকদের ব্যঙ্গ করে তিনি লেখেন, ‘আসুন আমরা শিক্ষামূলক নাটক বানাই, শিক্ষার হার বাড়াই। প্রতিটি নাটক হয়ে উঠুক শিক্ষামূলক।’ এই লাইটি লিখে জুড়ে দেন হাসির ইমো।

আফরান নিশো আরো লেখেন, ‘ফ্যামিলি, বাবা-মা, স্কুল, কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় সব হবে বন্ধ। বিনোদন সেক্টর এর দায়িত্ব, তারাই তো দেখাবে পথ, বাড়াবে শিক্ষার হার।’

তবে নিশোর এ কথায় অনেকেই হতাশ হয়েছেন। নাট্যবিশ্লেষকরা মনে করেন, অভিনেতা থেকে শুরু করে নাটক নির্মাণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবার নজর রাখা উচিত, যাতে নাটকের ভাষা থাকে বিমুদ্দ ও সর্বজনীন। নাটক যেন একজনের বাজে উক্তির কারণে কোনো দুষ্টের দায়ে না পড়ে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads