• বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬
ads

শোবিজ

নক্ষত্রের বাইরে মোনালিসা

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৮ অক্টোবর ২০১৯

বিনোদন জগতের অনেকটা হারিয়ে যাওয়া উজ্জ্বল নক্ষত্রের নাম মোনালিসা। একাধারে জনপ্রিয় মডেল, নৃত্যশিল্পী ও অভিনেত্রী তিনি। এমন নক্ষত্রটি যেন অসময়েই নিষ্প্রভ হয়ে দর্শক-ভক্তদের বঞ্চিত করছেন।

এরপর ২০০২ এবং ২০০৭ সালে একটি মোবাইল ফোন কোম্পানির বিজ্ঞাপনে কাজ করার সুবাদে তিনি জাতীয় পর্যায়ে সেরা নারী মডেলের পুরস্কার লাভ করেন। বাংলাদেশের মডেলিং জগতে সাদিয়া ইসলাম মৌয়ের পর মোনালিসার মধ্যেই নির্মাতারা খুঁজে পান গ্ল্যামারের দ্যুতি। কিন্তু সেই জায়গা থেকে যেন দূরে সরে গিয়েছেন মোনালিসা।

মোনালিসার সংস্কৃতি অঙ্গনে পদচারণা শুরু হয় ১০ বছর বয়সে নাচ ও মডেলিং দিয়ে। মডেলিংয়ে তারিক আনাম খান নির্দেশিত একটি কসমেটিকস বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রথম সবার নজর কাড়েন। এর পাশাপাশি তিনি টেলিভিশন নাটকেও অভিনয় শুরু করেন।

২১ বছর বয়সে তিনি ‘কাগজের ফুল’ নাটকে অভিনয় করেন। পরে হুমায়ূন আহমেদ পরিচালিত ‘তৃষ্ণা’ নাটকে অভিনয় করেন। ২০১১ সালে তিনি এক পর্বের নাটক ‘বাজি’, ‘একটু ভালোবাসা’, ‘বান্দুলুম ও রোমিওরা’ এবং ধারাবাহিক নাটক ‘অল রাউন্ডার’ ও ‘ভালো থেকো ফুল মিষ্টি বকুল’ নাটকে অভিনয় করেন। ২০১২ সালে ঈদের বিশেষ নাটক ‘চম্পাকলি’ এবং সাগর জাহান পরিচালিত ‘সিকান্দার বক্স’ সিরিজের ছয় পর্বের মিনি ধারাবাহিক ‘সিকান্দার বক্স এখন বিরাট মডেল’-এ মোশাররফ করিমের বিপরীতে অভিনয় করেন মোনালিসা। এছাড়া মাহফুজ আহমেদের সঙ্গে কোমল পানীয়ের বিজ্ঞাপনেও কাজ করেন তিনি।

২০১২ সালের ১৭ জুন আমেরিকা প্রবাসী ফাইয়াজ শরীফ ফাসবির সঙ্গে মোনালিসার বাগদান সম্পন্ন হয়। বিয়ের পর ২০১৩ সালে তিনি স্বামীর সঙ্গে নিউইয়র্ক চলে যান। তিন বছর পর ২০১৬ সালের এপ্রিলে মোনালিসা বছর দুয়েকের জন্য দেশে আসেন। আবার মডেলিং ও অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। দীর্ঘ বিরতির পর তিনি আটটি ঈদের বিশেষ নাটকে অভিনয় করেন। এরপর মোনালিসা আবার ফিরে যান যুক্তরাষ্ট্রে। এখন তিনি নিউইয়র্কেই নিজের জীবন সুন্দরভাবে সাজিয়ে নিতে ব্যস্ত আছেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads