• বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

শোবিজ

বিরতির পর লিজা

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ৩০ অক্টোবর ২০১৯

সানিয়া সুলতানা লিজা। এক সময়ের আলোচিত কণ্ঠশিল্পী। ২০০৮ সালে ‘ক্লোজআপ ওয়ান তোমাকেই খুঁজছে বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে সবার নজর কাড়েন। তার সমসাময়িক অনেকেই পিছিয়ে থাকলেও তিনি গানকে আষ্টেপৃষ্ঠে আঁকড়ে ধরেন। মেধা, যোগ্যতা ও কঠোর পরিশ্রমের ফলে আজ সংগীতাঙ্গনে নিজের অবস্থান তৈরি করে নিচ্ছেন।

গানের ব্যস্ততা সম্পর্কে লিজা বলেন, ‘মধ্যে অসুস্থ ছিলাম। ব্যস্ততা ভালো যাচ্ছে। স্টেজ শোর পাশাপাশি টিভি প্রোগ্রামও করছি। সামনে শীতের মৌসুম থাকায় ধীরে ধীরে স্টেজ শোর ব্যস্ততা বাড়ছে। সম্প্রতি দুটি টিভি চ্যানেলের জন্য দুটি রেকর্ডিং প্রোগ্রাম করেছি। একটি চ্যানেল আইয়ের ‘পালকি’ অন্যটি বৈশাখী টিভির ‘বৈশাখী সকালের গান’। এ ছাড়া টিভি লাইভ প্রোগ্রামও করছি। কয়েকদিন আগে মাছরাঙা ও এনটিভিতে লাইভ করেছি।

স্টেজ, টিভি ও সিনেমা সবখানেই গান করতে ভালো লাগে লিজার। ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ব্যানারে নতুন গান করছেন লিজা। ‘অনেক কিছু’ শিরোনামের গানটি লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন। সুর করেছেন কলকাতার আকাশ সেন। সংগীতায়োজন করেছেন সাজিদ সরকার। সেড রোমান্টিক ঘরানার গান। গানটি নিয়ে ৭ মিনিটের একটি মিউজিক্যাল ফিল্ম তৈরি হয়েছে। শিগগিরই ইউটিউবে এই মিউজিক্যাল ফিল্মটি অবমুক্ত করা হবে। গানটি করে অনেক ভালো লেগেছে। রিজা বলেন, ‘এ ছাড়া নিজের ইউটিউব চ্যানেলের জন্য চারটি গান করেছি। গানটি নিয়ে একটি মিউজিক্যাল ফিল্ম তৈরি হয়েছে। এখানে চমৎকার একটা গল্প আছে। শিগগিরই ইউটিউবে এই মিউজিক্যাল ফিল্মটি অবমুক্ত করা হবে।’

বর্তমানে সবাই ইউটিউব নির্ভর গান ও শিল্পী নিয়ে ব্যতিব্যস্ত। এ বিষয়ে লিজা বলেন, ‘সময়ের পরিবর্তনে অনেক কিছুই নতুন আবিষ্কার হয়। ইউটিউব এ সময়ের নতুন আবিষ্কার। দিনদিন এর গুরুত্ব বাড়ছে। ইউটিউবে প্রকাশের জন্য শুধু গানই নয়, নাটকও তৈরি হচ্ছে। আগে অ্যালবামে গান প্রকাশ পেত, এখন ইউটিউবে প্রকাশ পায়। কিছু প্রতিভাবান শিল্পী আছেন তারা টিভি চ্যানেলে সুযোগ পায় না। ইউটিউবের কল্যাণে তারা নিজেদের মেধাকে প্রকাশ করতে পারছে। এটা খারাপ কিছু নয়। তবে ইউটিউবের ব্যবহারটা যথাযথ হতে হবে, মানসম্মত হতে হবে। অনেক ভালোভালো শিল্পীরাও ইউটিউবের জন্য গান করছেন।’

নতুনদের বিষয়ে অনেকটাই পজিটিভ লিজা। বলেন, ‘নতুনরাও অনেক পরিশ্রমী। আগ্রহও প্রচুর। শিল্পী হওয়ার মনবাসনা নিয়ে অনেক নতুনরাই গানের সাধনা করে যাচ্ছেন। আগে গান প্রকাশের মাধ্যম কম ছিল, এখন অনেক মাধ্যম। অনেক টিভি চ্যানেল বেসরকারি রেডিও আছে বেশ কিছু। আগের তুলনায় এখন অনেকটা সহজ হয়ে গেছে। অন্যদিকে দর্শকদের একটি বিষয়ও থাকে। তাদের কাছে কারো কারো গান ভালো লাগে। ইউটিউবে ভিউয়ার্সের একটি বিষয় যেমন থাকে, অন্যদিকে শিল্পীর কিছু গুণও থাকে বলেই মানুষ তাকে পছন্দ করেন। লাখ টাকা খরচ করে তাকে আমন্ত্রণ করেন।’ অনেকদিন ধরে প্লেব্যাকে নেই লিজা। এর হেতু হিসেবে লিজা বলেন, এ পর্যন্ত ৫০টিরও বেশি সিনেমায় গান করেছি। সর্বশেষ দেবাশীষ বিশ্বাসের ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ-২’ ছবিতে গান করেছিলাম ইমরানের সঙ্গে দ্বৈত কণ্ঠে। আসলে এখন তো সিনেমা কম তৈরি হচ্ছে তাই সিনেমায় গান করা হচ্ছে না।

চর্চা করার জন্য অবশ্যই পুরনো গান গাইতে হবে বলে মনে করেন লিজা। তিনি বলেন, ‘এখন প্রচুর মৌলিক গান হচ্ছে। এটা নির্ভর করবে শিল্পীর ওপর। সে কোন ধরনের গান গাইতে চায়। তবে পুরনো কিংবা কালজয়ী গান দর্শক পছন্দ করেন। দীর্ঘ সময়ের পরেই তো একটি গান কালজয়ী হয়ে ওঠে। এসব গান গাইতেও ভালো লাগে। এ সময়ের কিছু কিছু গানও একসময় কালজয়ী হয়ে থাকবে।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads