• রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads

শোবিজ

বহুরূপের অর্ষা

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৮ নভেম্বর ২০১৯

এ সময় ছোটপর্দার অন্যতম মেধাবী অভিনেত্রী লাক্স তারকা নাজিয়া হক অর্ষা। চাহিদা থাকা সত্ত্বেও সমসাময়িক অনেকের মতো মাসের ত্রিশ দিনই শুটিং করেন না তিনি। বেছে বেছে কাজ করেন বলে তার নাটকগুলোতে যত্নের ছাপ স্পষ্ট। তিনি যে চরিত্রে অভিনয় করেন তা নিয়ে ভাবেন, কী পোশাক হবে, চরিত্রটি দেখতে কেমন হবে এসব নিয়ে কাজ করেন তিনি। তার অভিনীত চরিত্রগুলোও হয় আলাদা। কখনো সাধারণ গৃহিণী, কখনো দজ্জাল প্রেমিকা আবার কখনো খেটে খাওয়া কোনো নারী। তবে ঈদের সময় বেশি কাজ করতে হয় রোমান্টিক গল্পে।

সম্প্রতি নতুন টেলিফিল্ম ‘গিনিপিগ’-এ অভিনয় করছেন অর্ষা। টেলিফিল্মে দেখা যায়, সবুজ ও বাদশা দুই বন্ধু। একটি ট্যুর কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত হয়ে ঘুরতে আসে নেপালে। দলটিতে একজন গাইডের মাধ্যমে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরিয়ে দেখাবে বলে চুক্তি হয়। দুই বন্ধু পাহাড়ে হাঁটছিল, হঠাৎ তাদের পায়ে আটকে যায় একটি কষ্টিপাথরের মূর্তি, যা অতি মূল্যবান। এ মূর্তি এখন কী করবে দুই বন্ধু ভেবে কূল পায় না। অগত্যা পরামর্শের জন্য উপস্থিত হয় গাইড রাহুলের সামনে। রাহুলও মূর্তিটি দেখে চিনে ফেলে। সে পরামর্শ দেয় যাতে মূর্তিটি নেপালেই বিক্রি করে যাওয়া হয়। এই কাজে সহযোগিতা করবে রাহুল। কিন্তু তাকে বিক্রীত টাকার ২৫ শতাংশ দিতে হবে। এ-কান ও-কান করতে করতে দলের অন্য মহিলা সদস্য অবন্তীও বিষয়টি জেনে ফেলে। সেও মূর্তিটি হজম করতে চায়। অঞ্জন আইচের রচনায় এটি পরিচালনা করেছেন দীপু হাজরা। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আ খ ম হাসান, নাজিয়া হক অর্ষা, তারিক স্বপন, সুজাত শিমুল, সূচনা আজাদ ও অঞ্জন আইচ। আগামীকাল রাত ৮টা ৩০ মিনিটে মাছরাঙা টেলিভিশনে প্রচারিত হবে টেলিফিল্ম ‘গিনিপিগ’।

বহুরূপে ছোটপর্দায় নিয়মিত হাজির হচ্ছেন অর্ষা। কখনো ভালো কখনো মন্দ কখনো-বা দ্বন্দ্বমুখর চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়াচ্ছেন অর্ষা। খণ্ডনাটকের পাশাপাশি ধারাবাহিক নাটকেও অভিনয় করছেন অর্ষা। তবে এখন খণ্ডনাটক ঘিরে তার ব্যস্ততা বেশি। অর্ষার অভিনীত প্রথম ওয়েব সিরিজ ‘দ্বিতীয় কৈশোর’। বায়োস্কোপ অরিজিনালস-এ প্রকাশিত এই ওয়েব সিরিজটি বেশ সাড়া ফেলেছিল। শিহাব শাহীনের পরিচালনায় এই ওয়েব সিরিজে তাহসান, অপূর্ব এবং আফরান নিশোও অভিনয় করেছিলেন।

ওয়েব সিরিজের জনপ্রিয়তা কেমন জানতে চাইলে অর্ষা বলেন, ওয়েব সিরিজের জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে। সামনে আরো বাড়বে বলে আমি মনে করি। ওয়েব সিরিজের গল্পগুলোও ভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। দুটি ওয়েব সিরিজে কাজ করে আমি নিজেও খুব সন্তুষ্ট।

সবসময় বৈচিত্র্যময় চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ খোঁজেন অর্ষা। নায়িকা চরিত্রেই অভিনয় করবেন এমন ভাবনা নেই তার। ভালো-মন্দ নানা ধরনের চরিত্রে অভিনয় করে পারদর্শিতা অর্জন করতে চান তিনি। বিশেষ করে খলচরিত্রের প্রতি তার আগ্রহ বেশি কাজ করে। কারণ অর্ষা মনে করেন খলচরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ থাকে বেশি।

একসময় পেইন্টিংয়ের খুব নেশা ছিল অর্ষার। ছেলেবেলা থেকেই পেইন্টিংয়ের প্রতি তার আগ্রহ। ড্রয়িং ক্লাসে সবসময় ভালো নম্বর পেতেন। পেইন্টিং বিষয়ে নানা খোঁজখবর রাখতেন। দেখে দেখে বিভিন্ন ছবি আঁকার চেষ্টা করতেন। শুটিংয়ের ফাঁকে মাঝে মাঝে স্কেচও করতেন। তবে এখন ব্যস্ততার কারণে ছবি আঁকা আর হয়ে ওঠে না।

ভবিষ্যৎ নিয়ে তেমন কোনো পরিকল্পনা নেই অর্ষার। তবে অর্ষা চান তার অভিনয়জীবন আরো বেশি সমৃদ্ধ করতে। নিজেকে আরো বেশি বিকশিত করে তুলতে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads