• বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭

শোবিজ

দ্বৈত চরিত্রে মনিরা মিঠু!

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৭ অক্টোবর ২০২০

নাটক-সিনেমায় নায়ক-নায়িকার বাইরে চরিত্রাভিনেতাদের অবস্থান বেশ গৌণ হয়ে আসছে। বিশেষ করে বাবা-মায়ের চরিত্রগুলো ক্রমশ বিলীন হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে টিভি অভিনেত্রী মনিরা মিঠুকে নিয়ে তৈরি হচ্ছে একটি চলচ্চিত্র। ‘পাপনামা’ নামের এই ‍সিনেমার প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। তাই নয়, মনিরা মিঠুকে এখানে পাওয়া যাবে তিন বয়সের চরিত্রে।

মিঠু বললেন, ‌‘সত্যি বলতে আজকাল আমরা তো আর অভিনয় করার তেমন সুযোগ পাই না। তবে এবার পেয়েছি বড় একটা ক্যানভাস, যেখানে নিজেকে অভিনয় শিক্ষার্থী হিসেবে দাঁড় করাতে পেরেছি। সুযোগ পেয়েছি ৩৫, ৪৫ ও ৮০ বছরের বৃদ্ধার চরিত্রে অভিনয়ের। কাজটি করে খুব খুশি আমি।’

ছবিটি নির্মাণ করছেন রুবেল আনুশ। জানান, শুটিং প্রায় শেষ। শুধু ফজলুর রহমান বাবুকে নিয়ে দুদিনের শুটিং বাকি আছে। গেল প্রায় ১৯ দিন ধরে সাভার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া এবং পুরান ঢাকার বিভিন্ন লোকেশনে হয়েছে শুটিং।

সম্প্রতি ‘পাপনামা’র একটি টিজার প্রকাশ হয়েছে ফেসবুকে। সেটি বেশ আলোচনায় এসেছে।

রুবেল আনুশ বলেন, ‘ছবির গল্পটি মূলত বউ-শাশুড়ির দ্বন্দ্ব নিয়ে। এই দুটি চরিত্রের কাউকে না কাউকে সাধারণত নাটক-সিনেমায় খারাপভাবে উপস্থাপন করা হয়। কিন্তু এই সিনেমায় তা করিনি। বউ-শাশুড়ির দ্বন্দ্ব্ব বা দূরত্ব কেন হয়, সেটা এখানে তুলে ধরবার চেষ্টা করেছি।’

ছবিটিতে মনিরা মিঠু অভিনয় করেছেন মা ও মেয়ের চরিত্রে। এতে আরো অভিনয় করেছেন সানজিদা তন্বী, দীপংকর দীপক, জুয়েল সালমান, শিমুল খান, সোহেল খান প্রমুখ।

শুটিং অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে মিঠু বলেন, ‘প্রতিদিন দুই ঘণ্টার বেশি সময় নিয়ে মেকআপ করতে হতো আমাকে, বিশেষ করে ৮০ বছরের বৃদ্ধার চরিত্রটির জন্য। তা ছাড়া আমি তো অভিনয় বিষয়ে পড়াশোনা বা মঞ্চ থেকে আসিনি, ফলে একজন অশিক্ষিত অভিনেতা হিসেবে একসঙ্গে নানা বয়সের চরিত্রে কাজ করাটা চ্যালেঞ্জ ছিল। তবুও আমাদের পরিচালক রুবেল আনুশের সহযোগিতায় সম্ভবত ভালোই করেছি।’

পরিচালক জানান, ‘পাপনামা’ মুক্তির ইচ্ছা ২০২১ সালের জানুয়ারিতে। তবে সেটা সীমাবদ্ধ রাখতে চান মাল্টিপ্লেক্সগুলোতে। সঙ্গে ভিডিও স্ট্রিমিং সাইটেও মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads