• সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads

টালিউড

‘ভূতপরী’ জয়া

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৪ আগস্ট ২০১৯

কলকাতার শীর্ষস্থানীয় অভিনেত্রীদের তালিকায় এগিয়ে বাংলাদেশের জয়া আহসান। এর মধ্যে বেশকিছু ছবি জমা হয়েছে তার হাতে। সম্প্রতি প্রসেনজিতের বিপরীতে ‘ময়ূরাক্ষী’ নামের ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পর এবার আরো একটি নতুন ছবির ঘোষণা এলো কলকাতা থেকে! যে ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন ‘দেবী’খ্যাত এই তারকা অভিনেত্রী।

কলকাতার প্রখ্যাত প্রযোজনা সংস্থা সুরিন্দর ফিল্মস। যে প্রযোজনা সংস্থাটির কর্ণধার টলিউডের তারকা অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিকের স্বামী নিশপাল সিং। এই প্রযোজনা সংস্থা থেকেই জানানো হলো, তাদের আসন্ন সিনেমা ‘ভূতপরী’র কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন বাংলাদেশের মেধাবী অভিনেত্রী জয়া আহসান।

কোয়েল মল্লিকের নিবেদনে ‘ভূতপরী’র একটি পোস্টারও এরই মধ্যে প্রকাশ্যে এসেছে। যে কস্টিউমে আটপৌরে বাঙালি নারীর বেশেই দেখা গেছে জয়া আহসানকে। তবে তার পেছনে পরীর মতো দুটি পাখনা লাগানো! ব্যাকগ্রাউন্ডে একটু ভৌতিক আবহ! জয়ার ‘ভূতপরী’ পরিচালনা করছেন ‘লোডশেডিং’ ও ‘রেইনবো জেলি’র নির্মাতা সৌকর্য ঘোষাল।

ছবিতে জয়া আহসানকে কাস্ট করার কারণ জানিয়ে সৌকর্য বলেন, জয়া আহসানকে নেওয়ার কারণ হলো ১৯৪৭ সালের ভূতকে দেখাতে হবে, যার বিয়ের দিন মৃত্যু ঘটে। সে সময়ের ভাষাটা রপ্ত রয়েছে এমন কাউকে প্রয়োজন ছিল। বর্ধমানের একটি গ্রামে শুটিং হবে সুরিন্দর ফিল্মসের এই নতুন ছবির। ছবিতে জয়া ছাড়াও দেখা যাবে ঋত্বিক চক্রবর্তীকে।

এ ছাড়া রয়েছেন সুদীপ্তা চক্রবর্তী, শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়ের মতো অভিনেতারা। ছবির সিনেমাটোগ্রাফি করছেন আলোক মাইতি, সম্পাদনার দায়িত্বে অর্ঘকমল মিত্র এবং সংগীত পরিচালনায় নবারুণ বসু।

বলা যেতেই পারে জয়া আহসানের দ্বিতীয় বাড়ি এখন কলকাতায়। সেখানে তার আলাদা পরিচয়ও গড়ে উঠেছে এবং সেটা যথেষ্ট সম্মান ও সমীহ করার মতো। এপারের শিল্পীরা সাধারণত ওপারে গিয়ে খুব একটা সুবিধা করতে পারেন না। নানারকম প্রতিবন্ধকতার শিকার হন। তবে মেধা আর যোগ্যতা যে কোনো বাধায় আটকে থাকে না, টালিগঞ্জের সিনেমায় তার প্রমাণ দিলেন জয়া আহসান।

জয়া এখন কলকাতার সব নামি নির্মাতার সেরা পছন্দের অভিনেত্রী। সমসাময়িক সব নায়িকার ঈর্ষার কারণও তিনি। তবে জয়া বিনয়ী, সংযত এবং ভালোবাসার মানুষ। সবার সঙ্গে মিশছেন হূদ্যতা নিয়েই। তাই অন্য অভিনেত্রীদের সঙ্গে পর্দায় প্রতিযোগিতা থাকলেও বাস্তবে দারুণ সব বন্ধুত্ব সোহিনী, স্বস্তিকা, পায়েলদের সঙ্গে। অন্য নায়িকারা যখন ভালো আর খারাপ ছবির ফারাক বোঝেননি, এপারের জয়া তখন ছবি নির্বাচনের ক্ষেত্রে চূড়ান্ত সতর্ক ছিলেন। ঠিক সে কারণেই এই মুহূর্তে শহরের অধিকাংশ নামি পরিচালকের পরবর্তী ছবিতে থাকছেন জয়া আহসান।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads