• সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৫
ads
এলো রেডমি কে২০

সংগৃহীত ছবি

টেলিযোগাযোগ

এলো রেডমি কে২০

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৯ মে ২০১৯

অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করা হলো রেডমি কে২০ এবং রেডমি কে২০ প্রো। মঙ্গলবার বেইজিংয়ে এক ইভেন্টে আনুষ্ঠানিকভাবে স্মার্টফোন দুটি বাজারে আনার ঘোষণা দেওয়া হয়। এই প্রথম রেডমি ব্র্যান্ডের অধীনে ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন আনল শাওমি। সমপ্রতি শাওমি থেকে আলাদা হয়ে প্রতিষ্ঠানটির সাবব্র্যান্ড হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে রেডমি। নতুন ব্র্যান্ডের অধীনে প্রথম স্মার্টফোনটি হলো রেডমি নোট ৭। মাত্র ১২৯ দিনে বিশ্বব্যাপী রেডমি নোট ৭ সিরিজের ১৩ কোটি স্মার্টফোন বিক্রি করেছে শাওমি।

এবার তুলনামূলক কম দামে ফ্ল্যাগশিপ স্পেসিফিকেশন ব্যবহার করে রেডমি কে২০ আর রেডমি কে২০ প্রো উন্মুক্ত করেছে কোম্পানিটি। যেসব গ্রাহক ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন কেনার জন্য পকেট খালি করতে চান না, তাদের কথা মাথায় রেখেই এই ফোন আনা হয়েছে। রেডমি কে২০ আর রেডমি কে২০ প্রোর সঙ্গে একই ইভেন্টে রেডমি ব্র্যান্ডের অধীনে প্রথম ল্যাপটপও এনেছে শাওমি। আপাতত চীনে এই দুটি স্মার্টফোন এবং ল্যাপটপ পাওয়া যাবে। তবে অন্যান্য দেশের বাজারে কবে নাগাদ ডিভাইসগুলো আনা হতে পারে সে ব্যাপারে এখনো কিছু জানানো হয়নি।

রেডমি কে২০ প্রোর দাম শুরু হচ্ছে ২ হাজার ৪৯৯ ইউয়ান থেকে। অন্যদিকে রেডমি কে২০ ফোনের দাম শুরু হচ্ছে এক হাজার ৯৯৯ ইউয়ান থেকে। একাধিক মেমোরি ও স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে এই দুই স্মার্টফোন। ১ জুন থেকে চীনে বিক্রি শুরু হবে রেডমি কে২০ প্রো। রেডমি কে২০ বিক্রি শুরু হবে ৬ জুন।

ডুয়েল সিমের রেডমি কে২০ প্রো ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ৯ পাই অপারেটিং সিস্টেমের ওপর চলবে কোম্পানির এমআইইউআই ১০ স্কিন। ফোনের ভেতরে রয়েছে ৬ দশমিক ৩৯ ইঞ্চি অ্যামোলেড এফএইচডি প্লাস ডিসপ্লে। ডিসপ্লের নিচে থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এতে থাকছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ চিপসেট, ৮ গিগাবাইট র্যাম আর ২৫৬ গিগাবাইট স্টোরেজ।

ছবি তোলার জন্য রেডমি কে২০ প্রো ফোনের পেছনে রয়েছে তিনটি ক্যামেরা। প্রাইমারি ক্যামেরায় রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেল সেন্সর। সঙ্গে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা সেন্সর। আর একটি ৮ মেগাপিক্সেল সেন্সর। সেলফি তোলার জন্য এই ফোনে রয়েছে একটি ২০ মেগাপিক্সেল পপআপ ক্যামেরা।

রেডমি কে২০ প্রো ফোনে রয়েছে একটি ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। সাথে রয়েছে ২৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট। ফোনটিতে আরও রয়েছে ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট আর ৩.৫ মিলিমিটার হেডফোন জ্যাক।

রেডমি কে২০ ফোনে রেডমি কে২০ প্রো ফোনের ডিজাইন ও একই স্পেসিফিকেশন ব্যবহার হয়েছে। শুধু রেডমি কে২০ ফোনে থাকছে স্ন্যাপড্রাগন ৭৩০ চিপসেট, ৬ গিগাবাইট র্যাম আর ১২৮ গিগাবাইট স্টোরেজ। ২৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জের পরিবর্তে রেডমি কে২০ ফোনে থাকছে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট।

অন্যদিকে রেডমিবুক ১৪ ল্যাপটপে থাকছে ১৪ ইঞ্চি হাই ডেফিনেশন ডিসপ্লে, অষ্টম জেনারেশন ইন্টেল কোর আই৭ প্রসেসর আর এনভিডিয়া জিফোর্স এমএক্স২৫০ গ্রাফিক্স কার্ড। ১ জুন চীনে এই ল্যাপটপের অগ্রিম বুকিং শুরু হবে। ১১ জুন শুরু হবে বিক্রি।

চীনে ল্যাপটপটির দাম শুরু হচ্ছে ৩ হাজার ৯৯৯ ইউয়ান থেকে। এই দামে কোর আই৫ প্রসেসর আর ২৫৬ গিগাবাইট এসএসডি স্টোরেজে পাওয়া যাবে রেডমিবুক ১৪। কোর আই৫ প্রসেসর আর ৫১২ গিগাবাইট এসএসডি স্টোরেজে এই ল্যাপটপের দাম ৪ হাজার ২৯৯ ইউয়ান। সব শেষে কোর আই৭ প্রসেসর আর ৫১২ গিগাবাইট এসএসডি স্টোরেজে কিনতে খরচ হবে ৪ হাজার ৯৯৯ ইউয়ান।

ল্যাপটপটিতে রয়েছে ১৪ ইঞ্চি আল্ট্র ন্যারো এইচডি ডিসপ্লে। ল্যাপটপে রয়েছে ৮ গিগাবাইট পর্যন্ত র্যাম আর ৫১২ গিগাবাইট পর্যন্ত এসএসডি স্টোরেজ।

টাইপ করার জন্য রেডমিবুক ল্যাপটপে রয়েছে ফুল সাইজ কীবোর্ড। প্রত্যেক কি-তে থাকছে ১ দশমিক ৩ মিলিমিটার ট্রাভেল। টাচপ্যাডে থাকছে মাল্টিটাচ সাপোর্ট।

শাওমি জানিয়েছে ল্যাপটপটিতে এক চার্জে ১০ ঘন্টা কাজ করা যাবে। এই ল্যাপটপে থাকছে উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেম। রেডমি বুক ১৪-এর ওজন ১ দশমিক ৫ কিলোগ্রাম।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads