• রবিবার, ৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬
ads
কক্সবাজারে পর্যটক আগমনে নিষেধাজ্ঞা

বুধবার বিকালে পর্যটকদের সাগর পাড় থেকে তুলে দিচ্ছে প্রশাসন।

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

পর্যটন শিল্প

করোনার বিস্তার ঠেকাতে

কক্সবাজারে পর্যটক আগমনে নিষেধাজ্ঞা

  • কক্সবাজার প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৮ মার্চ ২০২০

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কক্সবাজারে সকল প্রকার জনসমাগম ও পর্যটক আগমনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে জেলা প্রশাসন। এ ছাড়া সমুদ্র সৈকতে অবস্থানরত সকল পর্যটকদের সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। প্রশাসনের এমন সিদ্ধান্তে ট্যুরিস্ট পর্যটকদের সরিয়ে দিতে ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেছে। কক্সবাজারে পর্যটক আগমনে নিষেদাজ্ঞা জারি করেছে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন।

আজ বুধবার (১৮ই মার্চ) বিকাল ৪ টার দিকে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা গণমাধ্যমকে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন। জেলা প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তের পর থেকে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকায় ট্যুরিস্ট পুলিশ মাইকিং করেছে। সরিয়ে দিচ্ছে পর্যটকদের।

ট্যুরিস্ট পুলিশের কক্সবাজার জোনের পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান জানিয়েছেন সৈকতে অবস্থানরত সকল পর্যটকদের সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এতে কোন প্রকার ছাড় দেওয়া হবে না। সকলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমরা বদ্ধপরিকর।

কক্সবাজারের সিভিল সার্জন ডা. মাহবুবুর রহমান জানিয়েছেন, কক্সবাজার জেলায় কোথাও এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি পাওয়া যায়নি। তবে ৩ জন বিদেশ ফেরত ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। করোনা ভাইরাস নিয়ে কক্সবাজার জেলাবাসিকে বিভ্রান্ত এবং আতংকিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তবে বলেছেন, সর্তক থাকতে হবে। হোটলে-মোটেলসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে জনসমাবেশ, বিনোদন অনুষ্ঠান পরিবেশন সহ সবধরনের জনাসমাগমের আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা প্রদান করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা। তিনি বলেণ,মূলত করোনা বিস্তার ঠেকাতে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে হোটেল-মোটেল জোন এলাকায় সচেতনাতামুলক প্রচারপত্র বিলি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads