• শনিবার, ৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
সম্মিলিত পর্যটন জোটের আত্মপ্রকশ

সংগৃহীত ছবি

পর্যটন শিল্প

সম্মিলিত পর্যটন জোটের আত্মপ্রকশ

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৯ এপ্রিল ২০২০

বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পকে আরো গতিশীল করা ও এর সার্বিক উন্নয়নে কাজ করতে সম্মিলিত পর্যটন জোট নামে একটি জোট গঠন করা হলো। জীবন জুড়ে পর্যটন শীর্ষক পর্যটন আন্দোলন পরিচালনাসহ ছয় দফা দাবিকে সামনে রেখে রাজধানীর পুরানা পল্টনের কসমিক টাওয়ার এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আজ এই সংগঠনের আত্মপ্রকাশ করা হয়। এসময় সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।

নয়টি নন কমার্শিয়াল পর্যটন প্রতিষ্ঠানের আঠারো জন সদস্যের সমন্বয়ে গঠন করা হয় নতুন এই জোটের আহবায়ক কমিটি। এই কমিটি আগামী ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের সকল কার্যক্রম পরিচালনা করবে বলে জানায়, সংগঠনটির আহবায়ক।

সংগঠনগুলো হলো বাংলাদেশ ট্যুরিজম ফাউন্ডেশন (বিটিএফ), বাংলাদেশ ট্যুরিজম এক্সপ্লোরার্স এসোসিয়েশন (বিটিইএ), বাংলাদেশ এভিয়েশন এন্ড ট্যুরিজম মিডিয়া ফোরাম, ট্যুর অপারেটরস্ এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার (টোয়াক), কুয়াকাটা ট্যুরিজম ম্যানেজমেন্ট এসোসিয়েশন (কুটুম), সিলেট ট্যুর গাইড এসোসিয়েশন, সিলেট ট্যুরিজম ক্লাব, শ্রীমঙ্গল পর্যটন সেবা সংস্থা এবং বেকারি এন্ড পেস্ট্রি শেফ এসেম্বলি অব বাংলাদেশ (বিপিসিএবি)। তবে ভবিষ্যতে অনুরূপ যে কোন বাংলাদেশি সংগঠন চাইলে জোটে যোগ দিতে পারবে।

জোটের আহবায়ক মনোনীত হয়েছেন বাংলাদেশ ট্যুরিজম ফাউন্ডেশনের সভাপতি জনাব মোখলেছুর রহমান, যিনি জোটের মুখপাত্র হিসেবেও কাজ করবেন। জোটের প্রথম যুগ্ম-আহবায়ক হয়েছেন জনাব শহীদুল ইসলাম সাগর, চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ ট্যুরিজম এক্সপ্লোরার্স এসোসিয়েশন, যিনি জোটের সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবেন।

নবগঠিত সম্মিলিত পর্যটন জোট শিগগির আন্দোলনের বিস্তারিত কর্মসূচি ঘোষণা করবে বলে জানান সংগঠনটির আহবায়ক মোখলেছুর রহমান । যার প্রধান লক্ষ্য হবে বাংলাদেশে একটি পর্যটন অর্থনীতি গড়ে তোলার মাধ্যমে যুবসমাজ ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং একটি শান্তিময় ও মানবিক সমাজ গড়ে তোলা।এসময় সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের সহযোগিতা কামনা করা হয়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads