• বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬
ads
বিশাল ব্যবধানে হেরে গেলেন থেরেসা মে

বিশাল ভোটের ব্যবধানে টেরেসা মে'র ব্রেক্সিট চুক্তি প্রত্যাখ্যান

ছবি : ইন্টারনেট

যুক্তরাজ্য

বিশাল ব্যবধানে হেরে গেলেন থেরেসা মে

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৬ জানুয়ারি ২০১৯

বিশাল ব্যবধানে হেরে গেলেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। মঙ্গলবারের যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্সে সদস্যদের ভোটাভুটিতে ২৩০ ভোটের ব্যবধানে প্রত্যাখ্যাত হয়েছে মে’র ব্রেক্সিট চুক্তি।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, থেরেসা মে’র চুক্তির বিপক্ষে ৪৩২ জন এমপি ভোট দিয়েছেন এবং পক্ষে পড়েছে ২০২ ভোট। গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে কোনও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পার্লামেন্টে সর্বোচ্চ ব্যবধানে হারলেন থেরেসা মে।

উল্লেখ্য, ৬৫০ আইনপ্রণেতার ব্রিটিশ পার্লামেন্টে স্পিকার ও তার ৩ সহযোগী মিলে ৪ জনের ভোট প্রদানের অধিকার নেই।

টানা পাঁচ দিন ধরে আলোচনার পর ব্রিটিশ পার্লামেন্টে পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুযায়ী স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাত আটটায় এই ভোট অনুষ্ঠিত হয়।

এক খবরে বলা হয়েছে, থেরেসা মে’র বিশাল ব্যবধানে পরাজয়ের ফলে দেশটি চরম রাজনৈতিক সংকটে পড়তে যাচ্ছে বলে আশঙ্কা করেছেন বিশ্লেষকেরা।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে পরাজয় নিশ্চিত হওয়ার পর থেরেসা মে তাৎক্ষণিকভাবে ঘোষণা দেন তার সরকারের বিরুদ্ধে পার্লামেন্টে অনাস্থা ভোট আনা হলে তাকে স্বাগত জানাবেন। বুধবার এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে বলেও জানান মে।

অন্যদিকে ইতিমধ্যে বিরোধী নেতারা সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রকাশ করেছে।

এই ফলাফল দেশটির অনেকের কাছে অনেকটা অনুমেয় ছিল বলে জানান বিশ্লেষকরা। দীর্ঘ আড়াই বছর ধরে ব্রেক্সিট ইস্যু নিয়ে চলছিল বিতর্ক। এই পরাজয়ের ফলে আবারো অনিশ্চয়তার পথে থাকলো ব্রেক্সিটের ভবিষ্যৎ।

থেরেসা মে’র ব্রেক্সিট চুক্তি বাস্তবায়িত হলে আগামী ২৯ মার্চ ইউরোপীয়ন ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার কথা ছিল যুক্তরাজ্যের। কিন্তু এই পরাজয়ের ফলে এ নিয়ে দীর্ঘ অনিশ্চয়তা থেকেই গেল।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads