• মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫
ads
বাংলাদেশ

বাংলাদেশ থেকে গরিব ও অসহায় মানুষদের ভয় আর লোভ দেখিয়ে পাচার করা হচ্ছে।

বিদেশ

পশ্চিমবঙ্গে জনপ্রিয় বাংলাদেশের কমিকস

  • আজাদ আল আমিন
  • প্রকাশিত ১৪ নভেম্বর ২০১৭

বাংলাদেশ থেকে গরিব ও অসহায় মানুষদের ভয় আর লোভ দেখিয়ে পাচার করা হচ্ছে। কাজে না লাগলে তাদের ছুড়ে ফেলা হচ্ছে সাগরে অথবা জিম্মি করে নেওয়া হচ্ছে মুক্তিপণ। পাচারকারীদের বিরুদ্ধে মাঠে নামল আন্তর্জাতিক গোয়েন্দা সংস্থা এসবিআইবি ও এর বাংলাদেশি এজেন্ট সি কে জাকি। রহস্যের সমাধানে দেশ থেকে বিদেশে চলে তাঁর মিশন।

এটি দেশি কমিক হিরো সি কে জাকিকে নিয়ে লেখা একটি গল্প। তবে সি কে জাকির মতো বাংলাদেশের কমিকসও এখন দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিদেশে যাচ্ছে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পাঠকদের কাছে বাংলাদেশের কমিকস বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। সেখানকার কমিকস লেখক ও শিল্পীরাও অনুপ্রাণিত হচ্ছেন এ দেশের মৌলিক কমিকস দেখে।

বাংলাদেশে বর্তমানে ধারাবাহিকভাবে মৌলিক বাংলা কমিকস তৈরি ও প্রকাশ করছে দুটি প্রতিষ্ঠান। এগুলো হলো ঢাকা কমিকস ও পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লিমিটেড। এই কমিকসগুলোর মূল চরিত্রগুলো দেশীয়। এর মধ্যে ঢাকা কমিকস শুধুই কমিকস নিয়ে কাজ করে থাকে। আর মাইটি পাঞ্চ স্টুডিওস নামের আরেকটি প্রতিষ্ঠান মূলত ইংরেজিতে কমিকস তৈরি করে। তবে এ বছর বাংলা কমিকসেরও দুটি বই এনেছে তারা।

তবে শুধু ছোট ছোট গল্পের কমিকস নয়, বড় গল্পের গ্রাফিক নভেল নিয়েও কাজ হচ্ছে বাংলাদেশে। কমিকস বইয়ে একাধিক গল্প থাকতে পারে, তবে গ্রাফিক নভেলে থাকে একটি গল্পের স্রোত। আর সেই বড় গল্প একাধিক বইয়েও গড়াতে পারে।

বর্তমানে ঢাকা কমিকসের প্রকাশিত বাংলা কমিকসের বইয়ের সংখ্যা ৪৩। পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লিমিটেড প্রকাশ করেছে ৪৯টি বই। আর মাইটি পাঞ্চ স্টুডিওস বাংলা কমিকসের দুটি বই বাজারে এনেছে।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বুক ফার্ম নামের একটি প্রতিষ্ঠান ঢাকা কমিকসের বইয়ের পরিবেশনা করছে। বুক ফার্মের কর্ণধার শান্তনু ঘোষ প্রথম আলোকে বলেন, পশ্চিমবঙ্গে গত তিন বছরে ৩০টি কমিকস বইও বের হয়নি। সেদিক থেকে বাংলাদেশে আধুনিক ও নতুন, বিশেষ করে মৌলিক গল্পের কমিকস তৈরি হচ্ছে।

শান্তনু ঘোষ জানান, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক ও পরিচিতজনদের কাছ থেকে তিনি বাংলাদেশের কমিকসের কথা শুনে যোগাযোগ করেন। দেড় বছর ধরে পশ্চিমবঙ্গে বাংলাদেশের কমিকস বিক্রি করছে তাঁর প্রতিষ্ঠান। বছরে গড়ে হাজার কপির বেশি কমিকস বিক্রি হচ্ছে।

গত কলকাতা বইমেলায় নির্ধারিত সময়ের আগেই ঢাকা কমিকসের সব বই বিক্রি হয়ে গিয়েছিল জানিয়ে শান্তনু বলেন, ‘এখানে বাংলাদেশের কমিকসের ভালো পাঠকশ্রেণি তৈরি হয়েছে। অনেকে তালিকা দেয় কমিকস এনে দিতে। আমাদের লেখক ও শিল্পীরা বাংলাদেশি কমিকস থেকে অনুপ্রাণিত হচ্ছে। আমরাও নতুন কমিকস তৈরির কাজ করছি এখন। তবে ঝকঝকে রঙিন কমিকস তৈরিতে এগিয়ে আছে ঢাকা। তারা আন্তর্জাতিক মানের কাজ করছে।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads