• রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads

ফাইল ছবি

বিদেশ

নওয়াজ শরীফকে জুতা নিক্ষেপ

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১১ মার্চ ২০১৮

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে জুতা ছুড়ে মেরেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এক ছাত্র। রোববার লাহোরে একটি ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তৃৃতা দেওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। জুতাটি তার কাঁধে এবং কানে গিয়ে লাগে।

এর আগে শিয়ালকোটে দলীয় কর্মীদের এক সম্মেলনে বক্তৃতা দেওয়ার সময় পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা আসিফের মুখে মাদ্রাসা ছাত্রদের কালি লেপনের পরদিনই শরীফকে জুতা ছুড়ে মারার এ ঘটনা ঘটল।

এনডিটিভি জানায়, লাহোরের ঘাড়ি শাহু এলাকার জামিয়া নায়েমিয়া ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে রোববার প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানো হয় নওয়াজ শরীফকে। বক্তৃতা দেওয়ার জন্য তিনি মঞ্চের কাছে যেতেই দুই ছাত্র তার সামনে গিয়ে দাঁড়ায় এবং ‘লাব্বায়েক ইয়া রাসুলাল্লাহ’ স্লোগান দেয়। এসময় একজন নওয়াজ শরীফের ওপর জুতা ছুড়ে মারে।

এসময় নিরাপত্তারক্ষীরা ঘটনাস্থলেই দুই ছাত্রকে মারধর করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পুলিশ জানিয়েছে, জুতা নিক্ষেপকারী ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরই সাবেক ছাত্র। তার নাম আবদুল গফুর। তার সঙ্গীর নাম সাঈদ। ঘটনার আকস্মিকতায় নওয়াজ শরীফ হতচকিত হয়ে পড়লেও মঞ্চ থেকে সরে যাননি। পরে বক্তব্য চালিয়ে গেছেন পাকিস্তান মুসলিম লীগ নওয়াজের এই নেতা। তবে বক্তৃতা সংক্ষেপ করেন তিনি।

পাকিস্তানের সংবিধানে হযরত মুহাম্মদ (সঃ) শেষ নবী হিসাবে উল্লেখ আছে- এতে নওয়াজ শরীফ ও তার দল (পিএমএল-এন) পরিবর্তন আনার চেষ্টা চালাচ্ছে বলে ধর্মীয় দলগুলো বিশেষ করে তেহরিক-ই-লাব্বায়েক পাকিস্তান নামক দলটি অভিযোগ করেছে। এর আগের দিন অর্থাৎ, শনিবারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা আসিফের মুখে কালি মাখানো ফয়েজ রসুলও পুলিশকে একই কথাই বলেছে। ‘তাদের এ প্রচেষ্টা আমিসহ পাকিস্তানের লাখো মুসলমানের অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে’, বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ফয়েজ রসুল।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads