• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

বিদেশ

অস্ত্র আইন কঠোরের দাবিতে যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপক বিক্ষোভ

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৫ মার্চ ২০১৮

গত মাসে ফ্লোরিডা হাইস্কুলে গুলির ঘটনায় বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থীদের ডাকে অস্ত্র আইন কঠোর করার দাবিতে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে হাজার হাজার তরুণ রাস্তায় নেমে এসেছে। বার্তা সংস্থা রয়টাস জানায়, ‘কখনোই নয়’ শ্লোগান নিয়ে শনিবারের এ বিক্ষোভ র‌্যালিগুলোতে তরুণ মার্কিনিদের পাশাপাশি তাদের অভিভাবক ও সমর্থকরাও অংশ নেন।

দেশটিতে কয়েক দশকের মধ্যে সর্ববৃহৎ এ ছাত্র জমায়েত থেকে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও আইনপ্রণেতাদের প্রতি অস্ত্র আইন নিয়ে সরব হওয়ার আহ্বান জানানো হয়। বিক্ষোভ সমাবেশগুলোতে ভোটার নিবন্ধকদের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মত। একদিনেই সারাদেশ থেকে কয়েক হাজার নতুন ভোটার নিবন্ধন করার সুযোগ হাতছাড়া করেনি তারা। ‘মার্চ ফর আওয়ার লাইভস’ নামের এ কর্মসূচির সবচেয়ে বড় জমায়েত হয়েছে ওয়াশিংটনে।

১৪ ফেব্রুয়ারি ফ্লোরিডার পার্কল্যান্ডের মার্জরি স্টোনম্যান ডগলাস হাইস্কুলের গুলির ঘটনায় বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থীদের কথা শুনতে এদিন বিক্ষোভকারীরা শহরটির পেনসিলভানিয়া অ্যাভিনিউর রাস্তায় জমায়েত হয়। মার্জরির বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থী এমা গনজালেজ যখন স্কুলে গুলির ঘটনায় নিহত ১৭ জনের নাম পড়ে শোনান। নাম পড়ার পর কিছু সময় নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি, তার গাল বেয়ে অশ্রুধারা ঝড়ে পড়ছিল।

এ সময় উপস্থিত বিক্ষোভকারীদের একটি অংশ ‘কখনোই নয়’, ‘কখনোই নয়’ শ্লোগান তুললেও অধিকাংশজনই নিরবতা পালন করেন। ফের বক্তৃতা দেওয়ার শুরু করেন গনজালেজ। তার বক্তৃতা শেষ হয় ৬ মিনিট ২০ সেকেন্ডে। ফ্লোরিডার স্কুলে ঢুকে তান্ডব চালাতে ঠিক এ সময়টুকুই নিয়েছিল ওই হত্যাকারী।

আগ্নেয়াস্ত্র বিক্রিতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের ক্ষেত্রে আইনী জট খোলার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের ভাষ্য, অস্ত্রের সহজলভ্যতাই পার্কল্যান্ডে স্কুলে গুলির ঘটনার মতো অসংখ্য ভীতিকর ঘটনার জন্ম দিচ্ছে।
বেঁচে যাওয়া আরেক শিক্ষার্থী ডেভিড হগ বিক্ষোভের দিনটিকে ‘নতুন দিন’ হিসেবে অ্যাখ্যা দিয়েছেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads