• রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮, ৬ কার্তিক ১৪২৫
ads
প্রতি পাঁচ নবজাতকের তিনজনই শালদুধ পায় না

মায়ের দুধের পাশাপাশি ঘরে তৈরি বাড়তি খাবার খাওয়ানোর মাধ্যমে ৬ শতাংশ শিশুমৃত্যু কমানো সম্ভব

ছবি : ইন্টারনেট

বিদেশ

প্রতি পাঁচ নবজাতকের তিনজনই শালদুধ পায় না

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১০ আগস্ট ২০১৮

বিশ্বে ৭৮০ লাখ নবজাতক জন্মের এক ঘণ্টার মধ্যে শালদুধ পায় না। সেই হিসেবে গড়ে পাঁচ নবজাতকের মধ্যে তিনজনই শালদুধ বঞ্চিত হওয়ায় স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ও ইউনিসেফের এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে আলজাজিরা।

জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা ডব্লিউএইচও’র প্রতিবেদনে বলা হয়, জন্মের এক ঘণ্টার মধ্যে শিশুকে মায়ের দুধ দিলে ৩১ শতাংশ নবজাতকের মৃত্যু রোধ, ১৩ শতাংশ শিশুমৃত্যু এবং ৬ মাস বয়সের পর মায়ের দুধের পাশাপাশি ঘরে তৈরি বাড়তি খাবার খাওয়ানোর মাধ্যমে ৬ শতাংশ শিশুমৃত্যু কমানো সম্ভব।

ইউনিসেফের কার্যনির্বাহী পরিচালক হেনরিট্টা ফোরে বলেন, জন্মের এক ঘণ্টার মধ্যে দুধ খাওয়ানোর মাধ্যমে নবজাতকের মৃত্যুহার কমানো সম্ভব। বিশেষত জন্মের এক ঘণ্টার মধ্যে দুধ খাওয়ানোর বিষয়ে আন্তর্জাতিক সচেতনতা তৈরি করতে হবে। যদিও অনুন্নত ও শিক্ষার হার কম যে দেশগুলোতে সেখানে মাতৃদুগ্ধ পান করানো নিয়ে অনেক ট্যাবু রয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি কিছুটা পরিবর্তন হলেও ঝুঁকিতে আছে লাখ লাখ শিশু। গত ১ থেকে ৭ আগস্ট পর্যন্ত ‘আন্তর্জাতিক মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ-২০১৮’ ঘোষণা করা হয়েছে। প্রতি বছর বিশ্বের ১২০টিরও বেশি দেশে দিবসটি উদযাপন করা হয়। শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানোয় উৎসাহ দিতে এবং শিশুদের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটাতে এই কর্মসূচি। চলতি বছর সপ্তাহটিকে সামনে রেখে আফ্রিকার অনুন্নত দেশগুলোতে বেশকিছু মানবাধিকার ও স্বাস্থ্যকর্মী পাঠিয়েছে ইউনিসেফ। বুকের দুধ খাওয়ানোতে জোর দিতে, ১৯৯০-এর আগস্ট মাসে ডব্লিউএইচও এবং ইউনিসেফের যৌথ ঘোষণাকে সফল করতেই এই কর্মসূচি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads