• বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
পাকিস্তানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট পিটিআইয়ের আরিফ আলভি!

পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) দলের হয়ে নমিনেশন পেপার জমা দিয়েছেন ডা. আরিফ আলভি

ছবি : সংগৃহীত

বিদেশ

পাকিস্তানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট পিটিআইয়ের আরিফ আলভি!

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৮ আগস্ট ২০১৮

আগামী ৪ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল সোমবার ছিল নমিনেশন পেপার জমা দেওয়ার শেষ দিন। এদিন তিনজন প্রার্থী নমিনেশন পেপার জমা দেন। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পছন্দের ব্যক্তিই দেশটির পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর এনডিটিভি ও জিও টিভি।

পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) দলের হয়ে নমিনেশন পেপার জমা দিয়েছেন ডা. আরিফ আলভি। এ ছাড়া পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) এইতজাজ আহসান এবং জামাত উলেমা-ই-ইসলামের (জেইউআই-এফ) প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন। গত ১৬ আগস্ট দেশটির নির্বাচন কমিশনার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেন। আসছে ৯ সেপ্টেম্বর দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট মামনুন হোসেনের পাঁচ বছর পূর্তি হবে। তার আগেই প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বিরোধী দলগুলো প্রার্থী দেওয়ার বিষয়ে একমত হতে না পারায় পিটিআইয়ের আরিফ আলভিই দেশটির পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবেন বলে ধারণা করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। গতকাল স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় একেবারে শেষ মুহূর্তে পিপিপির প্রার্থী আহসান নমিনেশন পেপার জমা দেন। জেইউআই-এফের মুখপাত্র এক বিবৃতিতে দাবি করেন, পিপিপি ছাড়া অন্য বিরোধী দলগুলো একজনকে প্রার্থী হিসেবে বেছে নিয়েছে। পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন), মুত্তাহিদা মজলিস-ই-আমল (এমএমএ), আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টি, পাখতুনখাওয়া মিলি আতওয়ামী পার্টি এবং ন্যাশনাল পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হচ্ছেন ফজল।

প্রেসিডেন্ট প্রার্থী দেওয়ার বিষয়ে সমঝোতায় পৌঁছাতে মধ্যস্থতাকারীরা ব্যাপক প্রচেষ্টা চালায়। গত রোববার পিপিপি এবং পিএমএল-এনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে তারা বৈঠক করেন। কিন্তু পিপিপি প্রার্থী হিসেবে আহসানের নাম প্রত্যাহারে অস্বীকৃতি জানালে সমঝোতার উদ্যোগ ভেস্তে যায়। পিএমএল-এনের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আহসান ইকবাল বলেন, আমরা চেয়েছিলাম সব বিরোধী দল একত্রিত হয়ে প্রার্থী দিতে। আশা করেছিলাম পিপিপি উদারতা দেখাবে। সব চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। পিপিপি নিজেদের সিদ্ধান্তে অটল। 

পিটিআই চেয়ারম্যান ইমরান খান দেশটির ২২তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে গত ১৮ আগস্ট শপথ নেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে আলভির নাম ঘোষণা করেন। দন্তচিকিৎসক ৬৯ বছর বয়সী আলভি পিটিআইয়ের প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের একজন। ২০০৬-১৩ সাল পর্যন্ত তিনি দলটির মহাসচিব ছিলেন।

আগামী ৩০ আগস্ট প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে। পার্লামেন্ট ও প্রাদেশিক পরিষদের সদস্যরা ভোট দিয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করেন। একই দিন পার্লামেন্ট ও প্রাদেশিক পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পাকিস্তানে সংসদীয় পদ্ধতির সরকার হওয়ায় প্রেসিডেন্ট পদটি প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সব ক্ষমতা থাকে প্রধানমন্ত্রীর হাতে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads