• বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারি ২০১৯, ৪ মাঘ ১৪২৪
ভুয়া পাসপোর্টধারী রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে পাঠাচ্ছে সৌদি আরব

ভুয়া পাসপোর্টধারী রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে পাঠাচ্ছে সৌদি আরব

সংগৃহীত ছবি

প্রবাস

ভুয়া পাসপোর্টধারী রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে পাঠাচ্ছে সৌদি আরব

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ০৮ জানুয়ারি ২০১৯

ভুয়া পাসপোর্ট ও কাগজপত্র ব্যবহার করে সৌদি আরবে পাড়ি জমানো কয়েকশ রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাচ্ছে রিয়াদ। জেদ্দার শুমাইসি ডিটেনশন সেন্টারে পাঁচ থেকে ছয় বছর ধরে আটক রয়েছেন এই রোহিঙ্গারা।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট আই এক খবরে জানিয়েছে, গত রোববার থেকে তাদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু করেছে সৌদি আরব। আটক থাকা রোহিঙ্গারা মিডল ইস্ট আইকে একটি ভিডিও ফুটেজ ও কয়েকটি অডিও রেকর্ড পাঠিয়েছেন। এতে রোহিঙ্গা এক যুবককে বলতে শোনা যায়, গত ছয় বছর ধরে তিনি সৌদি আরবে রয়েছেন এবং এখন তাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। যেখানে তিনি অন্য রোহিঙ্গাদের মতো শরণার্থী হবেন। ওই যুবক বলেন, আমি গত পাঁচ থেকে ছয় বছর ধরে এখানে রয়েছি। কিন্তু তারা এখন আমাকে বাংলাদেশে পাঠাচ্ছে। দয়া করে, আমার জন্য প্রার্থনা করুন। বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর বিরোধিতা করায় তাদের কয়েকজনকে হাতকড়া পরিয়ে রাখা হয়েছে বলে জানান ওই যুবক।

রোহিঙ্গাদের পাঠানো অপর একটি অডিওতে শোনা যায়, ডিটেনশন সেন্টারের কর্মকর্তারা মাঝরাতে তাদের সেলে এসে ব্যাগ গোছাতে এবং বাংলাদেশে ফেরতের জন্য প্রস্তুত হতে বলেছেন।

রোহিঙ্গা মানবাধিকার কর্মী ন্যা স্যা এলউইন বলেন, বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর পরিবর্তে সৌদি আরব যদি এই রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মুক্তি দেয়, তাহলে বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে থাকা পরিবারের সদস্যদের সহায়তা করতে পারবেন তারা।

তিনি বলেন, তারা অপরাধী নয় যে তাদের হাতকড়া পরাতে হবে। অথচ সৌদি কর্তৃপক্ষ তাদেরকে অপরাধী হিসেবে দেখছে। এখন তাদের শরণার্থী শিবিরে পাঠানো হবে এবং বাংলাদেশে শরণার্থীদের সংখ্যা বাড়বে।

বাংলাদেশি পাসপোর্ট ও ভুয়া কাগজপত্র ব্যবহার করে সৌদি আরবে পাড়ি জমানো অনেক রোহিঙ্গা জেদ্দার শুমাইসি ডিটেনশন সেন্টারে আটক রয়েছেন। অনেকে আবার ভুটান, ভারত, পাকিস্তান এবং নেপালের পাসপোর্টও ব্যবহার করে সৌদি আরব গেছেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads