• সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
প্রেমে ব্যর্থ হয়ে মালয়েশিয়ান তরুণী কে ছুরিকাঘাত

বাংলাদেশি যুবক সাইদুল ইসলামকে ধরে নিয়ে যাচ্ছে মালয়েশিয়ান পুলিশ। ইনসেটে মালয়েশিয়ান তরুণী

ছবি : বাংলাদেশের খবর

প্রবাস

বাংলাদেশী যুবকের ২০ বছর কারাদণ্ড

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে মালয়েশিয়ান তরুণী কে ছুরিকাঘাত

  • আশরাফুল মামুন
  • প্রকাশিত ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে মালয়েশিয়ান তরুণীকে ধারালো ছুরি দিয়ে মুখ কেটে দেওয়ার অপরাধে বাংলাদেশি যুবক সাইদুল ইসলামের ২০ বছরের কারাদণ্ড।

গতকাল শুক্রবার তরুণীকে হত্যার উদ্দেশ্যে আঘাত করায় প্রচলিত আইনের ৩২৬ ধারা অনুযায়ী তাকে ২০ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন মালয়েশিয়ান আদালত।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানী কুয়ালালামপুরের পার্শ্ববর্তী কোতা দামানসারার একটি শপিংমলের কাছে প্রেমের প্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে মালয়েশিয়ান তরুণীকে ধারালো ছুরি দিয়ে মুখ কেটে দেয় বাংলাদেশি সাইদুল। আহত নারীর বয়স ২৪ বছর। দীর্ঘদিন ধরে ঐ বাংলাদেশি প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল, কিন্তু তার প্রেমে সাড়া না দেওয়ায় বারংবার ওই নারির সাথে অসুলভ আচরণ করতো সাইদুল।

এদিকে, পেতালিংজায়া জেলা পুলিশ প্রধান সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ জনি চে দিন জানান, পুলিশকে ঘটনাটি জানানোর পরপরই এই ঘটনার শিকার হন ওই নারী। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় মালায় মেডিকেল সেন্টার (পিপিএমএম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছে, ঠোঁটের উপরে প্রায় পাঁচ ইঞ্চির মত কেটে গেছে। আহত নারীর অভিযোগে আটক করা হয় বাংলাদেশি যুবক সাইদুলকে।

এঘটনার পর থেকে মালয়েশিয়ার সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে বাংলাদেশ বিরোধী ব্যাপক ঝড় উঠেছে। বাংলাদেশিদের ভিসা বাতিলসহ নতুন করে যাতে বাংলাদেশিদের মালয়েশিয়ায় কাজের সুযোগ না দেওয়া হয় তার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছে সে দেশের নাগরিকরা।

সাইদুল ইসলামকে সাত দিনের রিমান্ড এবং অস্ত্র ব্যবহার করে ওই নারিকে গুরুতর আহত করায় দণ্ডবিধির ৩২৬ ধারার অধীনে মামলাটি তদন্ত শেষে শুক্রবার আদালতে নেয়া হলে আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ২০ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন আদালত।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads