• শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads
মালয়েশিয়ায় শঙ্কায় বাংলাদেশি শ্রমিকরা

ফাইল ছবি

প্রবাস

মালয়েশিয়ায় শঙ্কায় বাংলাদেশি শ্রমিকরা

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১২ জুন ২০১৯

সাম্প্রতিক সময়ে এসে মালয়েশিয়াতে সরকার পরিবর্তনের পর অবৈধ অভিবাসীবিরোধী অভিযান আরো জোরদার হয়েছে। এতে বেশ ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে বাংলাদেশি শ্রমিকদের। কয়েক বছর ধরেই দেশটিতে অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযান চলছে। চলতি বছরে এ পর্যন্ত আটক করা হয়েছে অন্তত পাঁচ হাজার বাংলাদেশি। বিবিসি বাংলার প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈধভাবেই মালয়েশিয়া গিয়েছিলেন বাংলাদেশি বিলকিস আরা। কিন্তু পরবর্তীকালে আবেদন করেও ভিসা না পাওয়ার কারণে এখন তিনি হয়ে গেছেন ‘অবৈধ’।

বিলকিস আরা বলেন, মালয়েশিয়ায় এখন নতুন করে অবৈধ অভিবাসী তাড়ানোর নাম করে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে, তাতে যেন বাংলাদেশি শ্রমিকরা ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেটি নিশ্চিত করতে এখন থেকেই পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

তিনি বলেন, আমরা কিন্তু আমেরিকা-কানাডায় আসিনি। আমরা এসেছি মালয়েশিয়ায়। এখানে এসেছি শ্রমিক হয়ে। আজ দেশে চলে গেলে পরিবারকে না খেয়ে থাকতে হবে। এখন আমাদের বের করে দিলে এর প্রভাব দেশেও পড়বে।

বিলকিস আরা আরো বলেন, মালয়েশিয়া এখন দুদিন পরপরই লোকজন ধরছে, কিন্তু দেশে পাঠাচ্ছে না। তাদের ধরে অত্যাচার করছে। এগুলো নিয়ে আলোচনা করা উচিত। অন্তত যারা রেজিস্ট্রেশন করেছে, তাদের থাকার ব্যবস্থা করা হোক। বছর দুয়েক আগে অবৈধ শ্রমিকদের রেজিস্ট্রেশন করে বৈধ হওয়ার একটি সুযোগ দিলে তাতেও তালিকাবদ্ধ হয়েছে বহু মানুষ। কিন্তু দুর্নীতি আর অনিয়মের কারণে সেখানেও প্রতারিত হয়েছে বহু বাংলাদেশি। আমি তাদেরই একজন।

মালয়েশিয়ায় কী পরিমাণ অবৈধ বাংলাদেশি শ্রমিক আছেন, তা সুনির্দিষ্টভাবে জানা কঠিন। এমন পরিস্থিতিতে শুক্রবার দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে অবৈধ শ্রমিক বা অভিবাসীদের তাড়িয়ে দেওয়ার ঘোষণা করে একটি বিবৃতি দিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে কুয়ালালামপুরে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম বলেন, বিবৃতিটি তারা দেখেছেন। তবে মালয়েশিয়া বিষয়টি

মেরিনা সুলতানা বলেন, মালয়েশিয়ায় যারা অবৈধ হয়ে আছে তাদের দায় দুই দেশের সরকারকেই নিতে হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads