• শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৫
ads
টেক্সাসে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২০

ছবি : সংগৃহীত

বিদেশ

টেক্সাসে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২০

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৪ আগস্ট ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে এল পাসোর ওয়ালমার্ট সুপার সেন্টারে বন্দুকধারীর গুলিতে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছে। এ হামলায় আহত ২৬ জনকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিবিসি জানায়, শনিবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টার দিকে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকোর সীমানা থেকে খানিকটা দূরে এল পাসোর ওয়ালমার্ট সুপার সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় স্পেশাল উইপন অ্যান্ড ট্যাকটিক্স টিম সন্দেহভাজনকভাবে এক যুবককে আটক করেছে। তবে ঠিক কতজন আহত হয়েছে তা নিশ্চিতভাবে বলা হয়নি।

আইন প্রয়োগকারী সংস্থার একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম এনবিসি নিউজ জানায়, আটক হওয়া ২১ বছর বয়সী তরুণের নাম প্যাট্রিক ক্রুসিয়াস। তিনি ডালাস এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয় সময় শনিবার সকাল এগারটার দিকে ঘটনাস্থল থেকে হামলার খবর পায় পুলিশ। তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দেরকে সেখানে দূরে থাকার আহ্বান জানায়।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায়, ঘটনাস্থলে থাকা সার্জেন্ট এনরিক ক্যারিলো সাংবাদিকদেরকে জানান যে আমরা একটি অভিজ্ঞ দল দিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হওয়া একটি সেল ফোন ভিডিওতে, শপিংমলটি থেকে লোকজনকে পালাতে এবং আতঙ্কে চিৎকার করতে দেখা যাচ্ছে।

শহরটির মেয়র ডি মার্গো টুইটারে লিখেছেন, আমি এই মর্মান্তিক ঘটনায় গভীরভাবে বিচলিত। হতাহতদের পাশে আছি আমরা।

দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই হামলাকে ‘ভয়ানক’ বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি টুইটারে স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে সবধরনের সহযোগিতা দেয়ার আশ্বাস দেন।

মেক্সিকোর জুয়ারেজ শহরের কাছাকাছি অবস্থিত এল পাসো। এই শহরে প্রায় ছয় লাখ ৮০ হাজার মানুষ বসবাস করে।

এদিকে টেক্সাসের অ্যাটর্নি জেনারেল কেন প্যাক্সটনের সিএনএন’র কাছে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেন, ‘হতাহতের সংখ্যা পরিবর্তন হচ্ছে। নির্দিষ্ট করে কোন সংখ্যা বলতে আমি ঘৃণা করি। কিন্তু আমি মনে করছি সংখ্যাটা আমাদের জন্য অবশ্যই বড়।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমি যতদূর শুনেছি নিহতের সংখ্যা ১৫ থেকে ২০ এর মধ্যেই হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads