• বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬
ads

বিদেশ

বলিভিয়ায় মেয়রের চুল কেটে দিলো বিক্ষোভকারীরা

  • আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৮ নভেম্বর ২০১৯

বলিভিয়ার একটি ছোট শহরের মেয়রের চুল কেটে লাল রঙ মেখে দিয়েছে বিরোধী বিক্ষোভকারীরা। এসময় তারা ওই মেয়রকে খালি পায়ে টেনে রাস্তায় নিয়ে যায়। কয়েক ঘণ্টা পর ক্ষমতাসীন দল মাস পার্টির ওই মেয়র প্যাট্রিসিয়া আর্সকে ভিন্তো শহরের পুলিশের কাছে তুলে দেয় বিক্ষোভকারীরা।

বলিভিয়ায় বিতর্কিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর থেকেই দেশটিতে সরকার সমর্থক ও বিরোধীদের মধ্যে সহিংস ঘটনা ঘটছে। ওই সিরিজ হামলার সবশেষ ঘটনা প্যাট্রিসিয়ার আক্রান্ত হওয়া। উভয়পক্ষের মধ্যে সহিংসতার ঘটনায় এখন পর্যন্ত তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ২০ অক্টোবর বলিভিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনের পর থেকেই দেশটিতে সহিংস বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। এরই অংশ হিসেবে এক দল সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারী কোচাবাম্বা প্রদেশের ভিন্তো শহরের একটি ব্রিজ অবরোধ করে।

খবরে বলা হয়- গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে, ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসের সমর্থকদের সঙ্গে সংঘর্ষে দুজন সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে। এরপরই বিক্ষুদ্ধ বিক্ষোভকারীদের একটি দল শহরের টাউন হলের দিকে যাত্রা করে।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, মেয়র প্যাট্রিসিয়া তাদের অবরোধ ভেঙে দেয়ার চেষ্টা করেন এবং ওই দুই কর্মীর মৃত্যুর জন্যও তাকে দায়ী করে প্রতিবাদকারীরা।

এদিকে বিক্ষোভকারীরা এসময় ‘খুনি, খুনি’ বলে স্লোগান দিতে থাকে। এর মধ্যে মুখোশধারী কয়েকজন ব্যক্তি প্যাট্রিসিয়াকে খালি পায়ে টেনে ব্রিজে নিয়ে যায়। তারা তাকে হাটু গেড়ে বসতে বাধ্য করে, তার চুল কেটে দেয় এবং তার গায়ে লাল রঙ ঢেলে দেয়। এমনকি তারা তাকে পদত্যাগপত্রে স্বাক্ষর করতে বাধ্য করে।

পরে প্যাট্রিসিয়াকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে বিক্ষোভাকারী। পুলিশ তাকে পরে স্থানীয় একটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads