• মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭
ads

বিদেশ

প্রেমে দেড় কোটি খোয়ালেন বৃদ্ধ

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১৭ নভেম্বর ২০১৯

অনলাইন ডেটিং সাইটের মাধ্যমে এক বিদেশি নারীর সঙ্গে বন্ধুত্ব হয়েছিল ৭৯ বছর বয়সী এক ব্যক্তির। একাকিত্ব কাটাতে গিয়ে ধীরে ধীরে তার প্রতি বেশ আসক্ত হয়ে পড়েন এ বৃদ্ধ। আর এই সুযোগটাই নিয়েছিলেন ওই নারী। কৌশলে তার কাছ থেকে প্রায় দেড় কোটি রুপি হাতিয়ে নিয়েছেন সেই প্রতারক। এমনকি ওই নারীর পাল্লায় পড়ে আরেকটু হলেই নিজের বাড়িঘরও বিক্রি করে দিচ্ছিলেন বৃদ্ধ।

সম্প্রতি ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাইয়ে ঘটেছে এ ঘটনা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, মুলুন্দ এলাকার বাসিন্দা ওই বৃদ্ধ পেশায় প্রকৌশলী ছিলেন। পুলিশ জানায়, গত মে মাসে একটি ইউরোপীয় ডেটিং সাইটে সাবস্ক্রাইব করেন ওই ব্যক্তি। সেখানে ৪১ বছর বয়সী এক নারীর সঙ্গে পরিচয় হয় তার। ওই নারী নিজেকে ভিভিয়ান লোভেট নামে পরিচয় দেন। এরপর থেকে হোয়াটসঅ্যাপে নিয়মিতই চ্যাট হতো তাদের।

ভিভিয়ান বলেছিলেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্র থেকে স্পেনে চলে গিয়েছেন। তার দুই সন্তান থাকলেও স্বামী হারিয়েছেন।

একদিন ওই ব্যক্তির কাছে পার্সেলে ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন ও কিছু গহনা পাঠান ভিভিয়ান। কিন্তু এসব নিতে রাজি হননি বৃদ্ধ। পরে কোনো একটি এতিমখানায় দান করে দিতে বললে সেগুলো গ্রহণ করেন তিনি।

এরপর গত জুলাইয়ে দিল্লি কাস্টমস থেকে রাধিকা শর্মা পরিচয়ে একটি ফোনকল আসে ওই ব্যক্তির কাছে। রাধিকা জানান, তার জন্য স্পেন থেকে কিছু উপহার এসেছে, যার সঙ্গে বিদেশি মুদ্রাও রয়েছে। এর জন্য তাকে বিনিময় শুল্ক পরিশোধ করতে হবে। এতে রাজি হয়ে তিনি ৫০ হাজার রুপি পাঠিয়ে দেন, বিপরীতে তার কাছে ই-মেইলে দিল্লি কাস্টমসের প্যাডে লেখা একটি চিঠি আসে।

এছাড়া অর্থের পরিমাণ বড় হওয়ার অজুহাতে ভিভিয়ানকে ভারতে আসতে বলেন রাধিকা শর্মা নামে তথাকথিত ওই কাস্টমস কর্মকর্তা। সম্পাহ খানেক পর ভিভিয়ান ওই ব্যক্তিকে জানান, তাকে মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগে বিমানবন্দরে আটক করা হয়েছে।

দ্রুত ছাড়ানোর ব্যবস্থা করতে প্রেমিকের (!) কাছে অনেক অনুনয়-বিনয় করেন সেই স্প্যানিশ নারী। এ কারণে স্ত্রীর গহনা বন্ধক রেখে তাৎক্ষণিক ৩০ লাখ রুপি পরিশোধ করেন ওই বৃদ্ধ।

এখানেই শেষ নয়, পরে আরো কয়েক ধাপে তার কাছ থেকে প্রায় দেড় কোটি রুপি হাতিয়ে নেয় ওই প্রতারক চক্র।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads