• রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ

মুক্তিযোদ্ধা কোটা না কমানোর দাবিতে মানববন্ধন-স্মারকলিপি

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১১ এপ্রিল ২০১৮

সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য যে ৩০ শংতাংশ কোটা আছে, তা না কমানোর দাবিতে গতকাল মঙ্গলবার বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন মুক্তিযোদ্ধারা। কোটা ব্যবস্থার সংস্কার দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের মধ্যে এই দাবি জানালেন মুক্তিযোদ্ধারা। দাবি আদায়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর স্মারকলিপিও দিয়েছেন তারা।

বগুড়া প্রতিনিধি জানান, সারিয়াকান্দিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধারা। স্মারকলিপিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা সংস্কার করে তাদের সন্তানদের ভবিষ্যৎ জীবন অনিশ্চয়তার মুখে ঠেলে না দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে। দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের স্মারকলিপি গ্রহণ করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবদুল কাদের। এ সময় মুক্তিযোদ্ধা আলী আজগর, আছালত জামান, খায়রুজ্জামান, আবু বক্কর, খলিলুর রহমান, শরিফ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানান, সকালে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের উদ্যোগে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে তাদের দাবিসংবলিত স্মারকলিপি জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর পেশ করা হয়। এ সময় মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন, দলিল উদ্দিন, সিদ্দিক হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ঝালকাঠি প্রতিনিধি : সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ হয়। পরে সেখানে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন হয়। এতে বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা দুলাল সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তরুণ কর্মকার প্রমুখ। মানববন্ধনের পর জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

নাটোর প্রতিনিধি : দুপুরে কালেক্টরেট ভবনের সামনে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের ব্যানারে মানববন্ধন হয়। মানববন্ধন শেষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রাজ্জাকুল ইসলামের কাছে স্মারকলিপি দেন মুক্তিযোদ্ধারা। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের জেলা কমিটির আহ্বায়ক নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি, সদস্যসচিব সৈয়দ মোস্তাক আলী মুকুল, মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ। বক্তারা বলেন, দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে স্বাধীনতার বিপক্ষের একটি চক্র কোটা ব্যবস্থা সংস্কারের এ আন্দোলন শুরু করেছে।

নেত্রকোনা প্রতিনিধি জানান, দুপুরে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নেত্রকোনা জেলা ও সদর উপজেলা ইউনিট এবং জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের ব্যানারে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে মানববন্ধন হয়। মানববন্ধন শেষে শহরে বিক্ষোভ মিছিল করা হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা মো. সামছুুজ্জোহা, নুরুল আমিন, আবদুল মতিন খান, মোজাম্মেল হক বাচ্চু প্রমুখ।

পিরোজপুর প্রতিনিধি জানান, গোপাল কৃষ্ণ টাউন ক্লাব সড়কে সকালে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড। এতে মুক্তিযোদ্ধাদের পাশাপাশি রাজনীতিবিদ এবং জনপ্রতিনিধিরাও অংশ নেন। মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহ্বায়ক রেজাউল করিম সিকদার মন্টুর পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাকিম হাওলাদার, সমীর কুমার দাস বাচ্চু, এমএ রব্বানী ফিরোজ, শহিদুল আলম মন্টু, আবদুর রাজ্জাক মোল্লা ও দিলীপ সিকদার, পৌর কাউন্সিলর সাদুল্লাহ লিটন ও শহিদুল ইসলাম সিকদার, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সদস্যসচিব সাইফুল ইসলাম সিকদার প্রমুখ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads