• সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ব্যানারে মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা

সংগৃহীত ছবি

বাংলাদেশ

কোটা সংস্কার প্রজ্ঞাপণ জারি না হলে ফের কর্মসূচি

  • প্রকাশিত ০৯ মে ২০১৮

কোটা বাতিল সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপণ জারিতে সরকার নাটক শুরু করেছে বলে অভিযোগ করেছেন আন্দোলনকারীরা। কোটা বাতিল করে বৃহস্পতিবারের মধ্যে প্রজ্ঞাপণ জারি না হলে রোববার থেকে আবার আন্দোলন শুরু হবে বলে জানিয়েছে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন শেষে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ব্যানারে সকাল ১১ টায় মানববন্ধন কর্মসূচির জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে থেকে আন্দলন মানববন্ধন শুরু হয়। মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। সেখানথেকে একটি মিছিল নিয়ে শাহবাগ হয়ে মিলন চত্বর ও রাজু ভাস্কর্যের সামনে আসেন আন্দোলনকারীরা।দুপুর ১২ টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত মানববন্ধন চলে।

পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি জানায়, সারা দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে এক যোগে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

কর্মসূচি শেষে রাজু ভাস্কর্যের সামনে কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, সরকার যেন দ্রুত কোটা বাতিল সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপণ জারি করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে কোটা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর সেই ঘোষণার পর এখন পর্যন্ত কোটা বাতিলের কোনো প্রজ্ঞাপণ জারি করা হয়নি।

রাশেদ খান আরো বলেন, ‘২৮ দিন পার হওয়ার পরও প্রজ্ঞাপণ জারি হয়নি। এখন সরকার আমাদের সঙ্গে নাটক শুরু করেছে। প্রজ্ঞাপণ জারি নিয়ে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। যদি কালকের মধ্যে প্রজ্ঞাপণ জারি না হয়, তাহলে রোববার থেকে সারা দেশে ছাত্ররা পথে নেমে আন্দোলন করবে। ছাত্র আন্দোলনের দাবানল ছড়িয়ে পড়বে।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads