• বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৫
ads
ঢাকার চতুর্থ না কুমিল্লার দ্বিতীয়

সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল

ছবি : বাংলাদেশের খবর

বিপিএল

বিপিএলের ফাইনাল আজ

ঢাকার চতুর্থ না কুমিল্লার দ্বিতীয়

  • স্পোর্টস রিপোর্টার
  • প্রকাশিত ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

শিরোপা নির্ধারণের মধ্য দিয়ে আজ শুক্রবার পর্দা নামবে ষষ্ঠ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল)।  মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় ফাইনালে মুখোমুখি হবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও ঢাকা ডায়নামাইটস। সাকিব আল হাসানের ঢাকা ও ইমরুল কায়েসের কুমিল্লার এই ফাইনালেই শেষ হবে ৩৫ দিনের জমজমাট আসরটি।  বুধবার দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে সাকিবের ঢাকা ৫ উইকেটে গতবারের চ্যাম্পিয়ন শক্তিশালী রংপুর রাইডার্স দলকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে। রংপুরকে ১৪২ রানে অলআউট করে ঢাকা ১৬.৪ ওভারে ৫ উইকেটে করে ১৪৭ রান। রংপুর লিগ পর্বের প্রথম দিকে হতাশা ছড়ালেও শেষদিকে দারুণ খেলে পয়েন্টে শীর্ষস্থান লাভ করে। কিন্তু তারা ৪ ফেব্রুয়ারি প্রথম কোয়ালিফায়ারে কুমিল্লার কাছে শোচনীয়ভাবে হেরে যায় ৮ উইকেটের ব্যবধানে। যে জয়ে কুমিল্লা প্রথম দল হিসেবে উঠে যায় ফাইনালে।  ঢাকা লিগ পর্বের প্রথম দিকে বেশ ভালো খেললেও শেষ দিকে কিছুটা খেই হারিয়ে ফেলে এবং এক পর্যায়ে তাদের শেষ চারে ওঠা নিয়েই সংশয় সৃষ্টি হয়েছিল। বলা যায়, অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে শেষ চারের টিকেট পায় ঢাকা। গত ৪ ফেব্রুয়ারি এলিমিনেটরে চিটাগং ভাইকিংসকে ৬ উইকেটে পরাজিত করে ফাইনালে ওঠারা আশা জিইয়ে রাখে ঢাকা। আর বুধবার দ্বিতীয় কোয়ালিফয়ারে দারুণ খেলে তারা রংপুরকে পরাজিত করে যোগ্য দল হিসেবেই ফাইনালে জায়গা করে নেয়।

লিগ পর্বে ১২ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বর দল হিসেবে শেষ চারে উঠে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল রংপুর (নেট রানরেট ১.০১৮)। ইমরুল কায়েসের কুমিল্লা দলও (নেট রানরেট ০.০৬৬) ১৬ পয়েন্ট পেয়েছিল। তবে কুমিল্লা নেট রানরেটে কিছুটা পিছিয়ে থাকায় দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ চারে খেলার সুযোগ পায়। ১২টি করে ম্যাচ শেষে মুশফিকুর রহিমের চিটাগং ১৪, সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস ১২, মেহেদী হাসান মিরাজের রাজশাহী কিংস ১২, অলক কাপালির সিলেট সিক্সার্স ১০ ও মাহমুদউল্লাহর খুলনা টাইটানস ৪ পয়েন্ট লাভ করে।

সবচেয়ে বাজে করে খুলনা। রাজশাহী তো পয়েন্টে ঢাকার সমান হয়েও নেট রানরেটে পিছিয়ে থেকে শেষ চারে উঠতে পারেনি। আর সিলেট দল লিগ পর্বের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত শেষ চারের আশা জিইয়ে রেখেছিল। কিন্তু ভাগ্য ভালো না থাকায় তারা বিদায় নেয় শেষ চারের আগেই।

আজ কুমিল্লা ও ঢাকার চলতি বিপিএলে তৃতীয় দফা লড়াই। লিগ পর্বের দুই ম্যাচেই কুমিল্লা পরাজিত করে ঢাকাকে। বলা যায়, দুটি লড়াই ছিল লো স্কোরিং ম্যাচ। গত ২২ জানুয়ারি মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে দুই দলের প্রথম ম্যাচে কুমিল্লা ৭ রানে পরাজিত করে ঢাকাকে। ম্যাচে কুমিল্লা ৮ উইকেটে ১৫৩ রান করে। জবাবে ঢাকা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৪৬ রান করতে সক্ষম হয়। ১ ফেব্রুয়ারি মিরপুরেই দুই দলের দ্বিতীয় ম্যাচেও কুমিল্লা জয়লাভ করে। তবে রানের ব্যবধান ছিল মাত্র ১। ম্যাচে ঢাকার বোলিং তোপে কুমিল্লা মাত্র ১২৭ রানে অলআউট হয়ে যায়। জবাবে ঢাকা আরো বাজে ব্যাটিং করে।

তারা ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৬ রান করে। এবার তৃতীয় দফা লড়াইও লো স্কোরিং হয় নাকি বিগ স্কোরিং হয় সেটাই দেখার বিষয়। সাকিবের ঢাকা দলে রয়েছেন ইংলিশ ব্যাটসম্যান লুক রাইট, ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার সুনিল নারিন, বিগ হিটার পোলার্ড, অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল ও প্রোটিয়া পেসার আন্দ্রে বার্চ। তারকাদের মধ্যে আরো রয়েছে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান রনি তালুকদার ও পেসার রুবেল হোসেন। দেশি-বিদেশি খেলোয়াড়রা ঠিকমতো পারফর্ম করতে পারলে কুমিল্লার জন্য বিপদ আসা অস্বাভাবিক নয়।

আর কুমিল্লা দলে রয়েছেন পাকিস্তানি বিশ্বখ্যাত অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি ও পেসার ওহাব রিয়াজ, ক্যারিবিয়ান বিগ হিটার এভিন লুইস, লঙ্কান কৃতী ব্যাটসম্যান থিসারা পেরেরার মতো কার্যকর খেলোয়াড়। সঙ্গে রয়েছেন বাংলাদেশের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল, ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস, শামসুর রহমান ও বোলার-অলরাউন্ডার সাইফুদ্দিনের মতো কার্যকর ক্রিকেটার।

ঢাকা ডায়নামাইটস : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), আসিফ হাসান, আন্দ্রে বার্চ, লুক রাইট, সুনিল নারিন, কায়রন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল, রনি তালুকদার, রুবেল হোসেন, হজরতউল্লাহ জাজাই, মিজানুর রহমান, মোহাম্মাদ নাইম, মোহর শেখ, নুরুল হাসান, কাজী অনিক, শুভাগত হোম ও রভম্যান পাওয়েল।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স : ইমরুল কায়েস (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, এভিন লুইস, শহীদ আফ্রিদি, আনামুল হক, শামসুর রহমান, থিসারা পেরেরা, সাইফুদ্দিন, মেহেদি হাসান, ওহাব রিয়াজ, সঞ্জিত সাহা, ইয়ামিন, আবু হায়দার, লিয়াম ডসন, মোহাম্মদ শহীদ, মোশাররফ হোসেন, জিয়াউর রহমান ও ওয়াকার সালামখেল।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads