• শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
সব চেষ্টাই বিফলে!

রংপুর নগরীতে গতকাল বাসচাপায় স্কুলছাত্র নিহতের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও অবরোধ করে শিক্ষার্থী এবং স্থানীয়রা

ছবি -বাংলাদেশের খবর

যোগাযোগ

রাজধানীসহ চার জেলায় নিহত আরো পাঁচ

সব চেষ্টাই বিফলে!

#রংপুরে বাসচাপায় প্রাণ গেল শিক্ষার্থীর # ৪ ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ # সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ৩০

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১৩ আগস্ট ২০১৮

সড়ক নিরাপদ করতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন, পুলিশের ট্রাফিক সপ্তাহ পালন, অভিযান-মামলা, বিআরটিএসহ অন্যান্য কর্তৃপক্ষের কড়াকড়ি সত্ত্বেও সড়কের পরিস্থিতির তেমন উন্নতি হচ্ছে না। সময় যতই গড়াচ্ছে, ততই আগের মতো বিশৃঙ্খল অবস্থায় ফিরে যাচ্ছে সড়ক। এখনো চলমান ট্রাফিক সপ্তাহ। সড়কে শৃঙ্খলা আনতে কাজ করছে স্কাউটরাও। পরিবহন মালিকরা নিয়েছেন নানা উদ্যোগ। সভা, সেমিনার, সিম্পোজিয়ামে চলছে পথচারী-পরিবহন শ্রমিকদের উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি। কিন্তু অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে কোনো উদ্যোগই কাজে আসছে না। সড়কে যে দিকে তাকানো যায় সেদিকেই বিশৃঙ্খল অবস্থা। দেখে-বুঝে মনে হচ্ছে সব চেষ্টাই বিফলে যাচ্ছে।

ঈদে ঘরমুখো যাত্রী ও গরুবোঝাই ট্রাক-পিকআপের চাপ আসার আগেই দেশজুড়ে সড়ক দুর্ঘটনার হার বেড়ে গেছে। গতকাল রোববার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে সকাল থেকেই যানজটে স্থবির ছিল রাজধানী ঢাকা। এই স্থবির অবস্থার মধ্যেও খোদ গুলিস্তানে বেপরোয়া বাসচাপায় প্রাণ গেল পথচারীর। এ ছাড়া রংপুরসহ বিভিন্ন জেলার সড়কে বেপরোয়া চালনায় ঝরেছে আরো ছয় প্রাণ। নিজস্ব প্রতিবেদক, ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

রংপুর : নগরীতে বেলা ১১টার দিকে দ্রুতগতির যাত্রীবাহী বাসের চাপায় এক স্কুলছাত্র নিহত হয়। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা প্রায় সাড়ে ৪ ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় সংঘর্ষে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ পুলিশের প্রায় ১০ সদস্য আহত হন। শিক্ষার্থী ও পথচারীসহ আহত হন আরো ২০ জন। নিহত জিওন (১৫) রংপুরের বদরগঞ্জের লোহানীপাড়ার জাহিদুল হকের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রংপুর কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্র জিওন বাইসাইকেলে স্কুল থেকে বাসায় ফিরছিল। নগরীর শুঁটকির আড়ত নামক স্থানে পৌঁছালে দ্রুতগতিতে গাইবান্ধা থেকে আসা রংপুরগামী ভাই-বোন পরিবহনের একটি বাস জিওনকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পর পরই জিওনের সহপাঠী, পার্শ্ববর্তী স্কুলের শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা সড়ক অবরোধ করে। এতে রংপুরের সঙ্গে ঢাকা, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর ও নীলফামারীর যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অবরোধকারীদের সঙ্গে পুলিশের কয়েক দফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় অবরোধকারীরা কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে। একপর্যায়ে পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে অবরোধকারীদের ছত্রভঙ্গ করে। বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, কিছুদিন আগে ঢাকায় বাসচাপায় দুজন মারা গেছে। এ ঘটনার পর সাবধান না হয়ে চালকরা আগের মতো থাকায় রংপুরে জিওনকে প্রাণ দিতে হলো। গাড়িচালকরা এত বেপরোয়া হলে চলবে না। এক্ষেত্রে সরকারের কার্যকর পদক্ষেপ চাই।

রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান সাইফ বাংলাদেশের খবরকে বলেন, অবরোধকারীদের হামলায় কোতোয়ালি থানার ওসি মোক্তারুল, ইন্সপেক্টর ফেরদৌস, এসআই এরশাদসহ ৮-১০ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। বাসচালককে আটক করা হয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে বলেও জানান তিনি।

ঢাকা : রাজধানীর গুলিস্তানের জিরো পয়েন্ট সংলগ্ন ইম্পেরিয়াল হোটেলের সামনের রাস্তায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবক (৩৫) নিহত হয়েছেন। গতকাল রোববার বিকাল ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পল্টন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ওয়ালিউর রহমান বলেন, রাস্তা পার হওয়ার সময় দ্রুতবেগে আসা একটি যাত্রীবাহী বাস ধাক্কা দিলে দূরে ছিটকে পড়েন ওই যুবক। গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এসআই জানান, দুর্ঘটনার পর পরই চালক পালিয়ে গেলেও বাসটি জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় পল্টন থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া ও চালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

আমাদের মেডিকেল সংবাদদাতা জানান, মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। নিহতের পরনে চেক লুঙ্গি, হাফ হাতা শার্ট ও কোমরে লাল গামছা ছিল।

খুলনা : নগরীতে ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে মো. লিটন (৩২) নামে এক ভ্যানচালক নিহত হয়েছেন। রোববার দুপুরে খুলনা-যশোর মহাসড়কের সুপার জুট মিলের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। লিটন নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার পেরোলি গ্রামের আকবর সরদারের ছেলে।

ফুলতলা থানার এসআই আবদুল আলিম জানান, খুলনা থেকে যশোরগামী একটি খালি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ট ১৬-৩৭০৮) বিপরীত দিক থেকে আসা গাছের চারাবাহী একটি ভ্যানকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক লিটন নিহত হন। দুর্ঘটনার পর ট্রাকটি ফেলে রেখে চালক পালিয়ে যায়।

জামালপুর : জেলার সরিষাবাড়ী-তারাকান্দি সড়কের মুলবাড়ী এলাকায় বিকালে কভার্ড ভ্যানচাপায় রহমত উল্লাহ নামে আড়াই বছরের এক শিশু নিহত হয়েছে। সে সাইঞ্চারপাড় গ্রামের সুজা মিয়ার ছেলে। একই ঘটনায় শিশুর মা হাফেজা বেগম আহত হয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হাফেজা বেগম তার শিশু ছেলেকে নিয়ে ভ্যানে চড়ে বাবার বাড়ি ভুরারবাড়ীতে যাচ্ছিলেন। তারা মুলবাড়ী পর্যন্ত পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা প্রাণ-আরএফএল কোম্পানির একটি কভার্ড ভ্যান (ঢাকা মেট্রো উ ১১-৩৬৬১) তাদের বহনকারী ভ্যানগাড়িকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই শিশু রহমত উল্লাহ নিহত হয়। আহত হাফেজাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সরিষাবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ মোহব্বত কবীর জানান, স্থানীয়রা কভার্ড ভ্যানটি আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : জেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইলে কাঁঠালবোঝাই ট্রাক থেকে ছিটকে পড়ে সন্তোষ রায় (২৫) নামে এক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। রোববার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার বিশ্বরোড এলাকার ফাহাদ ফিলিং স্টেশনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সন্তোষ হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার আদাবর এলাকার হরি রায়ের ছেলে। তিনি পেশায় কাঁঠাল বিক্রেতা ছিলেন।

খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ওসি হোসেন সরকার জানান, দুপুরে নরসিংদী থেকে ট্রাকে করে কাঁঠাল নিয়ে মাধবপুরে ফিরছিলেন সন্তোষ। তিনি ট্রাকে থাকা কাঁঠালের ওপরে বসেছিলেন। ট্রাকটি ফাহাদ ফিলিং স্টেশনের সামনে এলে চালক গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ করতে হঠাৎ ব্রেক চাপেন। এ সময় সন্তোষ ছিটকে নিচে পড়ে যান। তাকে আহতাবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নাটোর : জেলার বড়াইগ্রামে ট্রাক ও ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে ভটভটিচালক রনি আহম্মেদ (২০) নিহত হয়েছেন। শনিবার রাত ৯টার দিকে নাটোর-পাবনা মহাসড়কের গড়মাটি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রনি আহম্মেদ বড়াইগ্রাম পৌরসভার জলন্দা গ্রামের আবদুল বারেক কাজীর ছেলে। একই ঘটনায় ভটভটির যাত্রী আবদুল মমিন আহত হন। তিনি বড়াইগ্রাম কালীবাড়ী মহল্লার হাদিস আলীর ছেলে।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি জিএম শামসুন নূর জানান, হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে হতাহতদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads