• বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯, ৯ শ্রাবণ ১৪২৫
ads
১৭ জুলাই উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি : সংগৃহীত

যোগাযোগ

বেনাপোল-বনলতা এক্সপ্রেস

১৭ জুলাই উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১২ জুলাই ২০১৯

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ১৭ জুলাই বেলা ১১টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঢাকা-বেনাপোল-যশোর রুটে নতুন ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস এবং রাজশাহী থেকে নবাবগঞ্জ পর্যন্ত বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন করবেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (আপারেশন) মিয়া জাহান এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী একই সময় ২টি ট্রেন উদ্বোধন করবেন। এ সময় গণভবনে উপস্থিত থাকবেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন, রেল সচিব মোফাজ্জেল হোসেন ও মহাপরিচালক সামসুজ্জামান। বেনাপোলে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিম) খন্দকার শহীদুল ইসলাম, স্থানীয় সংসদ সদস্যরা এবং যশোর চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসকরা পৃথক স্থানে উপস্থিত থাকবেন।

বেনাপোল এক্সপ্রেস উদ্বোধনী দিন দুপুর সোয়া ১টায় বেনাপোল থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসবে। এ ট্রেনে কোচ আছে ১২টি। ৮৯৬ আসনের এই ট্রেনটি প্রতিদিন বেনাপোল স্টেশন থেকে ছেড়ে যশোর, ঈশ্বরদী জংশন ও ঢাকা বিমানবন্দরে যাত্রী ওঠানামার জন্য সাময়িক বিরতি দিয়ে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে এসে যাত্রা শেষ করবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ে, রাজশাহী (পশ্চিম) মহাব্যবস্থাপক খন্দকার শহীদুল ইসলাম জানান, বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনের শোভন চেয়ারের টিকেটের দাম ৫০০, এসি (শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত) চেয়ার ১০০০ ও এসি কেবিনের দাম ১২০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আধুনিক এই ট্রেনের কোচগুলো (বগি) ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা। ইতোমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে ট্রেনটি চালানো হয়েছে। আসন্ন ঈদুল আজহায় দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ এই ট্রেনে চলাচলের সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। বেনাপোল থেকে বেলা সাড়ে ১১টায় এবং ঢাকা থেকে রাত সাড়ে ১২টা ট্রেনটি যাত্রা করবে। বনলতা ট্রেনটি রাজশাহীর নবাগঞ্জ থেকে ভোর সাড়ে ৫টায় ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসবে। এই ট্রেনের আসন সংখ্যা ১০০০ হাজারের বেশি করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি সাপেক্ষে আসন সংখ্যা ও ভাড়া নির্ধারণ করা হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads