• রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬
পদ্মায় নতুন রুটে চলছে ফেরি

পদ্মায় নাব্যতার কারণে ৮ ঘণ্টা শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর নতুন রুটে ফেরি চলাচল শুরু করে।

ছবি : বাংলাদেশের খবর

যোগাযোগ

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুট বন্ধ

পদ্মায় নতুন রুটে চলছে ফেরি

  • লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০১ আগস্ট ২০১৯

পদ্মায় নাব্য সংকটের কারণে বন্ধ হয়ে গেছে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটের পুরাতন ফেরি পথ। এর ফলে গত বুধবার মধ্যরাত থেকে এই পথে ফেরি চলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। রাত ১১টার দিকে রো-রো ফেরি এনায়েতপুরী শিমুলিয়াঘাট থেকে ছেড়ে গিয়ে লৌহজং টানিং পয়েন্টের ডাউন মুখে ডুবো চরে আটকে যায়। রাতভর চেষ্টা করে দীর্ঘ ৭ ঘন্টা পরে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টায় ফেরিটি উদ্ধার করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে টানা ৮ ঘণ্টা পর বিকল্প পথ দিয়ে ফেরি চলাচল শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ।

বিআইডব্লিউটিসির উপ মহা-ব্যবস্থাপক নাসির মোহাম্মদ চৌধুরী জানান, টানা ৮ ঘণ্টা শিমুলিয়াঘাট বন্ধ থাকায় পারাপারের অপেক্ষায় মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়াঘাটে আটকা পড়ে সাত শতাধিক যানবাহন। এতে বেড়েছে যাত্রী ভোগান্তি। সকাল থেকে ফেরি চলাচল শুরু হলে কয়েকশ গাড়ি পাড় হয়ে বিকাল পর্যন্ত ঘাটে থাকে প্রায় চার শতাধিক যানবাহন।

তিনি আরো জানান, বর্ষা মৌসুমে লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে পলি পরে ফেরি চলাচলে বাধাগ্রস্থ হয়। ফলে, গেলো কয়েক বছর ধরে এই মৌসুমে বিকল্প আরেকটি চ্যানেল চালু করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় নতুন চ্যানেল চালুর মাধ্যমে সকাল থেকে ফেরি চলাচল শুরু হয়। তবে ঈদ যাত্রায় যানবাহনের চাপ বাড়বে বলে পুরাতন চ্যানেলটি খনন করে চালু না করলে যাত্রী চাপে বিপাকে পরতে হবে বলে জানান তিনি। এছাড়া বিকল্প পথটি প্রসস্থতা কম থাকায় এই পথে রাতে সীমিত আকারে ফেরি চলাচল করতে হবে, এতে করে যাত্রী ও চালক ভোগান্তি বাড়বে বলেও জানান তিনি।

অন্যদিকে বিকল্প পথে ফেরি স্বাভাবিকভাবে চলতে পারবে বলে দাবি করে বিআইডব্লিউটিএ’র উপ-পরিচালক এসএম আজগর আলী বলেন, ঈদে নির্বিঘ্নে যাত্রীদের পারাপারে নতুন রুটটি যথেষ্ট। তবে পথটির প্রসস্থতা বাড়াতে চারটি ড্রেজার কাজ করছে এবং প্রয়োজনে পুরান পথের পলি অপসারণ কাজ করা হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads