• শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
দৌলতদিয়া ঘাটে পারের অপেক্ষায় শত শত যানবাহন

ছবি: বাংলাদেশের খবর

যোগাযোগ

দৌলতদিয়া ঘাটে পারের অপেক্ষায় শত শত যানবাহন

  • গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

দেশের গুরুত্বপূর্ণ দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের ঘাট এলাকায় নাব্য ও ফেরি সংকটের কারণে যানবাহন পারাপার ব্যহত হচ্ছে। ঘাট এলাকায় আটকা পড়ছে শত শত যানবাহন। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা নাগাদ দৌলতদিয়া প্রান্তে মহাসড়কের অন্তত ৩ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ৩ শতাধিক বিভিন্ন যানবাহন আটকে পড়ে। আটকে পড়া যানবাহনের যাত্রী ও চালকেরা দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন।

বিআইডব্লিউটিসি ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সূত্রে জানা যায়, নদীতে তীব্র স্রোতের সঙ্গে পলি এসে পাটুরিয়ার ৪ ও ৫নং ঘাট এলাকায় জমছে। এতে ঘাটের বেসিনে পানির নাব্যতা কমতে শুরু করেছে। বর্তমানে ফেরি চলাচলে বিঘ্ন না হলেও সতর্কতার অংশ হিসেবে আগে থেকেই কর্তৃপক্ষ ওই এলাকায় ড্রেজিং কার্যক্রম শুরু করেছে। বুধবার ৫নং ঘাটের আপ পকেট এবং বৃহস্পতিবার ৪নং ঘাটের ডাউন পকেট বন্ধ রেখে ড্রেজিং কার্যক্রম চালানো হয়। দুটি ঘাট বন্ধের পাশাপাশি ড্রেজার মেশিন ও পাইপের কারণে অন্যান্য ঘাট দিয়েও ফেরি চলাচলে ব্যাঘাত ঘটে।

দৌলতদিয়ার ১নং ঘাট এলাকাতেও শুরু হয়েছে ড্রেজিং। তাছাড়া রুটের ১৮টি ফেরির মধ্যে বুধবার দিনরাত চলে ১৫টি ফেরি। বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে রো রো ফেরি শাহজালাল ঠিক হলেও এখনো পর্যন্ত কাবেরী ও মাধবীলতা নামের দুটি ফেরি বিকল রয়েছে। এছাড়া শিমুলিয়া-কাওরাকান্দি রুটে তীব্র স্রোত ও নাব্য সংকটের কারণে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ডাম্ব ফেরিগুলো চলতে পারছে না। রোরো ফেরিগুলো চলছে শুধুমাত্র রাতের বেলা। ওই রুটে নৌ পারাপারে অধিক বিড়ম্বনার কারণে বহু গাড়ি দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুট ব্যবহার করছে। এর বাড়তি চাপ পড়ছে এখানকার ঘাট এলাকায়।

সরেজমিন বৃহস্পতিবার দেখা যায়, দৌলতদিয়ায় ফেরিঘাট থেকে বাংলাদেশ হ্যাচারী পর্যন্ত প্রায় ৩ কিলোমিটার জুড়ে মহাসড়কে অন্তত ৩ শতাধিক বিভিন্ন যানবাহন আটকে আছে। এদের মধ্যে ভিআইপি প্রথা বাতিল হয়ে যাওয়ায় অনেক এসি বাসকেও সারিতে আটকে থাকতে দেখা যায়। ফেরির নাগাল পেতে যাত্রীবাহী বাসগুলোকে দীর্ঘ সময় আটকে থাকতে হচ্ছে। ফলে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন যাত্রী ও চালকরা।

বিআইডব্লিউটিসি’র আরিচার জিএম (ভারপ্রাপ্ত) জিল্লুর রহমান জানান, ফেরি কমে যাওয়ায় এবং ঘাট এলাকায় নাব্য সংকটের কারণে ড্রেজিং কার্যক্রম চলায় সাময়িকভাবে ফেরি চলাচলে ব্যাঘাত ঘটে। এতে করে দৌলতদিয়া প্রান্তে দক্ষিণাঞ্চল থেকে আসা যানবাহনের সিরিয়ালের সৃষ্টি হচ্ছে। তবে পাটুরিয়ায় যানবাহনের চাপ না থাকায় আমরা এ ঘাটে ফেরি আসা মাত্রই পূর্ণলোডের অপেক্ষা না করে ফেরিগুলোকে দৌলতদিয়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে দিচ্ছি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads