• বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
ads
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ঘাটে আটকা শতশত যানবাহন

পারাপারের অপেক্ষায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ঘাটে আটকাপড়া শতশত যানবাহন

ছবি : বাংলাদেশের খবর

যোগাযোগ

তীব্র স্রোতে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটে ফেরি বন্ধ

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ঘাটে আটকা শতশত যানবাহন

  • গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পদ্মা নদীতে তীব্রস্রোতের কারণে গুরুত্বপূর্ণ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটে শনিবার ভোর ৪টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে আছে। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের ফেরিগুলোও স্বাভাবিকভাবে চলাচল করতে পারছে না। প্রতিটি ফেরি নদী পার হতে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ সময় লাগছে। এতে করে যানবাহন পারাপার চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট অফিস ও অন্যান্য সূত্রে জানা যায়, গত কয়েকদিনে আরেক দফা পানি বৃদ্ধি পেয়ে পদ্মা-যমুনা নদীতে তীব্রস্রোতের সৃষ্টি হয়েছে। প্রচন্ড স্রোতের বিপরীতে রুটের ফেরিগুলো স্বাভাবিক ভাবে চলাচল করতে পারছে না। এ অবস্থায় শনিবার ভোররাত ৪টা হতে কতৃপক্ষ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটেও তীব্র স্রোতের কারণে ফেরি চলাচল চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে ফেরি পারাপারে প্রায় দ্বিগুণ সময় লাগাতে কমে গেছে ফেরির ট্রিপ সংখ্যা। এ অবস্থায় শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটের যানবাহনগুলো দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে আসতে থাকায় উভয় ঘাট এলাকায় বাড়তি চাপে শতশত যানবাহন আটকা পড়ে দীর্ঘ সিরিয়ালের সৃষ্টি হয়েছে। পাশাপাশি এ রুটের ফেরিও চলছে মাত্র ১৫টি। সন্ধ্যামালতি ফেরিটি যান্ত্রীক দুর্বলতার কারনে তীব্রস্রোতের বিপরীতে চলতে পারছে না।

সরেজমিন দেখা যায়, শনিবার বিকেলে ৫টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দৌলতদিয়া ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে দৌলতদিয়া কেকেএস সেফ হোম পর্যন্ত অন্তত ৩ কিলোমিটার জুড়ে যানবাহনের দীর্ঘ সারির সৃষ্টি হয়েছে। ঘাট এলাকার আড়াই কিলোমিটার ফোরলেন সড়কের বাম পাশে অন্তত ৩ শতাধিক বিভিন্ন যানবাহন আটকে থাকতে দেখা যায়। এসময় একাধিক বাস চালক অভিযোগ করেন, দীর্ঘ সময় সিরিয়ালে আটকা থেকে তারা অনেক ভোগান্তি পোহাচ্ছেন।

বরিশাল থেকে আসা ঢাকাগামী শাকুরা পরিবহনের সুপার রবিউল ইসলামে সাথে কথা হয় বেলা ৪টার দিকে। তিনি অভিযোগ করেন, আমি প্রায় ১ ঘন্টার উপর দীর্ঘ সিরিয়ালে দাড়িয়ে আছি। আরো শতশত গাড়ী সিরিয়ালে আছে। কিন্তু অনেক এসি-ননএসি গাড়ী আমাদের পাশ দিয়ে দ্রুত বেগে ঘাটের দিকে চলে যাচ্ছে। তারা দালাল ও পুলিশকে ম্যানেজ করে এভাবে যাচ্ছে বলে আমরা জানতে পেরেছি।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া অফিসের ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ রনি জানান, রুটে ১৫টি ফেরি চলছে। কিন্তু তীব্র স্রোতের কারনে ফেরিগুলোর ট্রিপে অতিরিক্ত সময় লাগায় ঘাট এলাকায় যানবাহনের সিরিয়ালের সৃষ্টি হয়েছে। এর সাথে বন্ধ থাকা শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটের বাড়তি যানাবহন আসায় সমস্যা আরো বেশি হচ্ছে। তবে মানুষের দূর্ভোগ কমাতে যাত্রীবাহি যানবাহনগুলোকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করা হচ্ছে।

ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আবুল হোসেন জানান, চালকদের অভিযোগ সঠিক নয়। মাঝখান থেকে কখনো কোন চালক সিরিয়াল ভেঙে সামনে চলে আসলেও পুলিশ বক্সের সামনে তাদেরকে আটকে মামলা দিয়ে আবার পিছনে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads