• বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫
ads
স্কুলপড়ুয়া ছেলের বন্ধুরা খুন করে ব্যাংক কর্মকর্তা সজলকে

স্কুলপড়ুয়া ছেলের বন্ধুরা খুন করে ব্যাংক কর্মকর্তা সজলকে

অপরাধ

স্কুলপড়ুয়া ছেলের বন্ধুরা খুন করে ব্যাংক কর্মকর্তা সজলকে

  • চট্টগ্রাম ব্যুরো
  • প্রকাশিত ০১ জুন ২০১৮

স্কুলপড়ুয়া ছেলের বন্ধুরাই ঘটিয়েছে চট্টগ্রামের হালিশহরে চাঞ্চল্যকর ব্যাংক কর্মকর্তা সজল নন্দী খুনের ঘটনা। মাত্র চার দিনের মধ্যেই এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পিবিআই। ব্যাংক থেকে পাওয়া ঋণের ২৯ লাখ টাকা লুট করতেই এ ঘটনা ঘটায় বলে স্বীকার করেছে গ্রেফতারকৃত তিনজন।

পিবিআই সূত্র জানায়, ব্যাংক কর্মকর্তা সজল হত্যা মামলায় নগরীর বিভিন্ন স্থানে টানা অভিযান চালিয়ে প্রতীক মজুমদার (১৬), জয় (১৭) ও জিকু বড়ুয়া (১৯) নামে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে প্রতীক মজুমদার নগরীর একটি স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র। সে নিহত সজল নন্দীর স্কুলপড়ুয়া ছেলের বন্ধু। বাকি দুজনের মধ্য জয় সদ্য এসএসসি পাস করেছে আর জিকু নগরীর একটি কলেজের এইচএসসির ছাত্র।

পিবিআইয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মঈন উদ্দিন জানান, নিহত সজল নন্দী ব্যাংক থেকে ২৯ লাখ টাকা ঋণ পেয়েছিলেন। তার ছেলে এ কথাটি বন্ধু প্রতীককে বলেছিল। এরপর প্রতীক ও তার বন্ধুরা মিলে ওই টাকা লুটের জন্য পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড ঘটায় বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা স্বীকার করেছে।

গত রোববার নগরীর বন্দর থানার মধ্যম হালিশহর ধূপপুল এলাকার বাসা থেকে ব্যাংক কর্মকর্তা সজল নন্দীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত সজলের বাড়ি চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার জ্যৈষ্ঠপুরা এলাকায়। তিনি রূপালী ব্যাংক সল্টগোলা শাখায় ক্যাশিয়ার পদে কর্মরত ছিলেন। এ ঘটনায় বন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads