• সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত তিন

বন্দুকযুদ্ধে ঝিনাইদহে দুইজন এবং ময়মনসিংহে একজন নিহত হয়েছেন

প্রতীকি ছবি

অপরাধ

মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত তিন

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৮ জুলাই ২০১৮

চলমান মাদকবিরোধী অভিযানের মধ্যে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ঝিনাইদহে দুইজন এবং ময়মনসিংহে একজন নিহত হয়েছেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দাবি, নিহতরা সবাই মাদক চোরাকারবারি। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মাদক আইনে মামলাও রয়েছে।

র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ঝিনাইদহ শহরের পবহাটি জামতলায় দুইজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- ঝিনাইদহ শহরের বাঘা যতীন সড়কের রহিম বক্সের ছেলে সাজ্জাদুল ইসলাম (৪২) এবং উদয়পুর গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৪০)। শনিবার রাত সোয়া ১টার দিকে জামতলায় র‌্যাবের একটি চেকপোস্টে গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

র‌্যাব-৬ এর ঝিনাইদহ ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার গোলাম মোর্শেদের বলেন, ‘কয়েকটি মোটর সাইকেল আসতে দেখে জামতলা চেকপোস্টে দায়িত্বরত র‌্যাব সদস্যরা থামার সংকেত দেন। কিন্তু মোটর সাইকেল আরোহীরা র‌্যাবকে রক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় ২০-২৫ মিনিট গোলাগুলি চলার পর তারা পালিয়ে যায়। পরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুজনকে পড়ে থাকতে দেখা যায়।’ তাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

গোলাম মোর্শেদ বলেন, ‘নিহত দুজনই মাদক ব্যবসায়ী। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকের মামলা আছে।’

এই অভিযানে র‌্যাবের দুই সদস্যও আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে দুটি ওয়ান শুটার গান, দুই রাউন্ড গুলি, ৫৫ বোতল ফেন্সিডিল, ১৫২টি ইয়াবা ও একটি মোটর সাইকেল উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে একজন নিহত হয়েছেন। নিহত ফারুক মিয়া (৩০) উপজেলার তেলোয়ারী গ্রামের সিদ্দিক মিয়ার ছেলে। তার নামে মাদক চোরাচালানসহ ১১টি মামলা রয়েছে বলে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি আশিকুর রহমানের দাবি।

তিনি বলেন, ‘শনিবার রাত সোয়া ২টার দিকে ঈশ্বরগঞ্জের আঠারবাড়ির তেলওয়ারী গণ্ডিমোড় এলাকায় গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে। মাদক ভাগ-বাটোয়ারার খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযানে যায়। মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালালে মাদক ব্যবসায়ীরা পিছু হটে। পরে ফারুক মিয়াকে সেখানে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়।’ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফারুককে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি।

তিনি বলছেন, ঈশ্বরগঞ্জ থানার এসআই সাফায়েত, এএসআই মো. খলিল ও কনস্টেবল আনোয়ার হোসেন এ অভিযানে আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ১০০টি ইয়াবা, সাতটি গুলির খোসা, একটি রামদা একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা কথাও পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মে মাসে মাদকবিরোধী অভিযান শুরুর পর প্রায় প্রতি রাতেই কথিত বন্দুকযুদ্ধে মাদক বিক্রেতাদের নিহত হওয়ার খবর দিয়ে আসছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ ধরনের ঘটনায় গত এক মাসে দেড় শতাধিক নিহত হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads