• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
নওশাবা ৪ দিনের রিমান্ডে

অভিনেত্রী কাজী নওশাবা, খসরুর সঙ্গে ‘কথোপকথনকারী’ নাওমী

সংগৃহীত ছবি

অপরাধ

নওশাবা ৪ দিনের রিমান্ডে

খসরুর সঙ্গে ‘কথোপকথনকারী’ নাওমী কুমিল্লায় আটক

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৬ আগস্ট ২০১৮

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে দায়ের করা মামলায় অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদকে চার দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন আদালত। অন্যদিকে বিএনপি নেতা আমীর খসরুর ফোনালাপের ঘটনায় কুমিল্লায় মিলহানুর রহমান নাওমী (২৭) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।

এ ছাড়া উসকানিদাতা হিসেবে শনাক্তকৃত ২৮টি ফেসবুক ও টুইটার আইডির মালিক এবং অ্যাডমিনদের গ্রেফতারে গতরাতেই পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগের মাঠে নামার কথা। আজকালের মধ্যে আরো অনেকেই গ্রেফতার হতে পারেন। পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আদালত ও পুলিশ সূত্র জানায়, রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় গতকাল রোববার বিকালে তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের এসআই বিকাশ কুমার পাল নওশাবাকে আদালতে হাজির করেন। পুলিশের সাত দিনের রিমান্ড আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম মাজাহারুল হক চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

শনিবার বিকালে ধানমন্ডিতে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দুর্বৃত্তের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনায় ফেসবুক লাইভে হাজির হয়েছিলেন ঢাকা অ্যাটাক ছবির অভিনেত্রী কাজী নওশাবা। সে সময় নওশাবা বলেন, ‘আমি কাজী নওশাবা আহমেদ আপনাদের জানাতে চাই, একটু আগে জিগাতলায় আমাদেরই ছোট ভাইদের একজনের চোখ তুলে ফেলা হয়েছে এবং দুজনকে মেরে ফেলা হয়েছে। ছাত্রলীগের ছেলেরা সেটা করেছে। আপনারা সবাই একসঙ্গে হোন প্লিজ। ওদেরকে প্রোটেকশন দেন, বাচ্চাগুলো আনসেভ অবস্থায় আছে। আপনারা রাস্তায় নামেন, প্লিজ রাস্তায় নামেন, প্লিজ রাস্তায় নামেন এবং ওদেরকে প্রোটেকশন  দিন।’ তিনি লাইভে আরো বলেন, ‘সরকার প্রোটেকশন দিতে না পারলে আপনারা মা-বাবা, ভাই-বোন হয়ে বাচ্চাগুলোকে প্রোটেকশন দেন, এটা আমার রিকোয়েস্ট।’

সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল সূত্রের মতে, তার এ তথ্যের কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি। কিন্তু ভিডিওটি ভাইরাল হয়। এতে সরকার বিব্রত অবস্থায় পড়ে। চলমান পরিস্থিতি নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগ র্যাব-১ শনিবার রাতে উত্তরা থেকে কাজী নওশাবাকে আটক করে। এরপর তাকে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় উত্তরা পশ্চিম থানায় সোপর্দ করা হয়।

আমাদের কুমিল্লা প্রতিনিধি জানান, একই ইস্যুতে বিএনপি নেতা আমীর খসরুর ফোনালাপের ঘটনায় কুমিল্লায় মিলহানুর রহমান নাওমীকে আটক করা হয়েছে। গতকাল সকালে জেলার বরুড়া উপজেলার দেওড়া গ্রামের ফুফুর বাড়ি থেকে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল তাকে আটক করে নিয়ে যায়। নাওমী কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ২০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও উনাইসার গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমান সুরুজের ছেলে। নাওমী লন্ডনে আইন বিষয়ে লেখাপড়া শেষ করে ব্যারিস্টার হয়েছেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর সঙ্গে একজনের অডিও ফোনালাপ আন্দোলনের সপ্তম দিন শনিবার ফেসবুকে ভাইরাল হয়। ওই অডিওতে নাওমীকে ঢাকায় আন্দোলনে সক্রিয় হতে বলেন আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। এ ঘটনায় নাশকতায় উসকানি ও রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে শনিবার রাতে চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন নগর ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর।

নাওমীর বাবা ছিদ্দিকুর রহমান সুরুজ বলেন, আমার ছেলের সঙ্গে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর মেয়ে লন্ডনে বিপিপি বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যারিস্টারি পড়ত। সেই সুবাদে ওই পরিবারের সঙ্গে তার একটি সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আগামী ১০ জুলাই আমার ছোট ভাইয়ের মেয়ের বিয়েতে খসরু সাহেবকে দাওয়াত দেওয়ার জন্য নাওমী টেলিফোন করেছিল। সে কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জড়িত নয়।

এদিকে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে গুজব ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়িয়ে নাশকতামূলক তৎপরতার উসকানিদাতা হিসেবে ২৮টি ফেসবুক ও টুইটার আইডি শনাক্তকৃতদের মধ্য থেকে বেশ কয়েকজনের অবস্থান নিশ্চিত করেছে পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগ। এদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান ইতোমধ্যে শুরু করা হয়েছে। আজকালের মধ্যে তারা ধরা পড়বে বলে সাইবার ক্রাইম আশা প্রকাশ করছে। এর মধ্যে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে পুঁজি করে অরাজকতা ও নাশকতামূলক তৎপরতার  অভিযোগ একাধিক রাঘববোয়ালকেও গ্রেফতার করা হতে পারে।

পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিটের এক পদস্থ কর্মকর্তা জানান, শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে পুঁজি করে নাশকতামূলক তৎপরতায় লিপ্ত হওয়া ও বিভ্রান্তিমূলক অপপ্রচারের অভিযোগে ২৮ ফেসবুক ও টুইটার আইডি চিহ্নিত করে গত ২ আগস্ট রমনা থানায় মামলা করে সাইবার ক্রাইম ইউনিট।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads