• বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
না.গঞ্জে অবসরপ্রাপ্ত অডিট কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার

অডিট কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার

প্রতীকী ছবি

অপরাধ

হত্যার অভিযোগ স্ত্রীর বিরুদ্ধে

না.গঞ্জে অবসরপ্রাপ্ত অডিট কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার

  • নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নারায়ণগঞ্জ শহরের জামতলা ধোপাপট্টি এলাকায় শাহাদাত হোসেন মোল্লা (৬৫) নামের অবসরপ্রাপ্ত অডিট কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার করেছে ফতুল্লা মডেল থানার পুলিশ। শনিবার রাত সাড়ে ১২টায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ১০০ শয্যাবিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। লাশ উদ্ধার নিয়ে পাল্টাপাাল্টি অভিযোগ রয়েছে।

শাহাদাত হোসেন মুন্সীগঞ্জের আশুরান এলাকার সামছুল হক মোল্লার ছেলে। তিনি শহরের জামতলা ধোপাপট্টি এলাকার সোহাগ মিয়ার বাড়ির তৃতীয় তলার পশ্চিম দিকের ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন। তিনি ডিজিপি পিএনটি নামের একটি অডিট সংস্থার সিনিয়র অডিট কর্মকর্তা ছিলেন। ৫ বছর পূর্বে শাহাদাত অবসর গ্রহণ করেন।

নিহতের মামাতো ভাই জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, সোনালী ব্যাংকের সঞ্চয় ব্যুরোতে স্ত্রীর সঙ্গে শাহাদাত হোসেনের যৌথ নামে ২০ লাখ টাকা ছিল। সেই টাকা নেওয়ার জন্য বিলকিস প্রায়ই স্বামীকে মারধর করত। এ বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার বিচার সালিশও হয়েছে। ২০১৭ সালের ৮ অক্টোবর শাহাদাত স্ত্রী বিলকিসের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি জিডিও দায়ের করেছিলেন। জাহাঙ্গীর হোসেনের দাবি ওই ২০ লাখ টাকার জন্য শাহাদাতকে হত্যা করেছে তার স্ত্রী। তবে স্ত্রী বিলকিস বেগম জানান, তিনি তার স্বামীকে হত্যা করেননি। তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহজালাল বলেন, নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন আছে। ময়নাতদন্তের পর হত্যা না স্বাভাবিক মৃত্যু সেটা নিশ্চিত হওয়া যাবে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads