• মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯, ৪ আষাঢ় ১৪২৫
ads
গুরুদাসপুরে স্বামীর যৌনাঙ্গ কর্তন করে হত্যা, স্ত্রী আটক

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

অপরাধ

গুরুদাসপুরে স্বামীর যৌনাঙ্গ কর্তন করে হত্যা, স্ত্রী আটক

  • গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১২ জানুয়ারি ২০১৯

নাটোরের গুরুদাসপুরে কাবিল বিশ্বাস (২২) নামের এক ব্যক্তিকে ধারালো হাসুয়া দিয়ে যৌনাঙ্গ কর্তন করে হত্যা করেছে তারই স্ত্রী রুমি খাতুন (১৭)। হত্যার অভিযোগে স্ত্রী রুমি খাতুনকে গ্রেফতার করেছে গুরুদাসপুর থানা পুলিশ। আজ শনিবার ভোর রাতে উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের মাঝপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, ৬ মাস আগে কাবিল বিশ্বাস ও রুমি খাতুনের বিয়ে হয়। কাবিলের বাড়ি চাটমোহর উপজেলার ধানকুরিয়া গ্রামের মো.নওশের বিশ্বাসের ছেলে এবং রুমির বাড়ি গুরুদাসপুর উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের মাঝপাড়া গ্রামের মৃত মকছেদ আলীর মেয়ে। কাবিল শ্বশুড় বাড়িতে বেড়াতে এসেছিল শুক্রবার। শনিবার ভোর রাতে স্ত্রী তার কাছে থাকা ধারালো হাসুয়া দ্বারা স্বামী কাবিলের অন্ডকোষ কেটে দেয়। ফলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় কাবিল বিশ্বাস ঘটনাস্থলেই মারা যায়। রাতে বিষয়টি গোপন থাকলেও সকালে ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন গুরুদাসপুর থানা পুলিশকে খবর দেয়। শনিবার বেলা ১২টার দিকে কাবিলের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এসময় স্ত্রী রুমি খাতুনকে গ্রেফতার করা হয় এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য নাটোর মর্গে পাঠানো হয়েছে।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সেলিম রেজা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধারের পাশাপাশি ভিকটিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত রুমি ঘটনার স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads