• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
বাঘাইছড়িতে সেনাবাহিনীর সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' সন্ত্রাসী নিহত

সন্ত্রাসীদের গুলিতে ক্ষতিগ্রস্ত সেনাবাহিনীর একটি গাড়ি

ছবি: বাংলাদেশের খবর

অপরাধ

বাঘাইছড়িতে সেনাবাহিনীর সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' সন্ত্রাসী নিহত

  • রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৩ আগস্ট ২০১৯

রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়িতে সেনাবাহিনীর সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রাটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) শীর্ষ সন্ত্রাসী শান্তিময় চাকমা নিহত হয়েছে। আজ শনিবার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সকাল ১০টার দিকে সেনাবাহিনীর নিয়মিত একটি টহল দল বাঘাইহাট থেকে গঙ্গারামের দিকে আসছিল। এ সময় আগে থেকে ওত পেতে থাকা স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীদের একটি দল সেনাবাহিনীর গাড়ির উপর অতর্কিত হামলা করে। সেনাবাহিনীও পাল্টা গুলি ছুড়লে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে। পরে সেনাবাহিনী ঘটনাস্থলে তল্লাশী চালিয়ে হাতে পিস্তল ধরা অবস্থায় শান্তিময় (৪০) ওরফে সুমন চাকমা ওরফে লাকির বাপের লাশ খুঁজে পায়। এ সময় তার কাছ থেকে আরো একটি পিস্তল পাওয়া যায়।সন্ত্রাসীদের ছোড়া গুলিতে সেনাবাহিনীর একটি গাড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাজেক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ঈস্রারাফিল জানান, আজ সকাল ১০টার দিকে গঙ্গারামে সেনাবাহিনীর নিয়মিত টহল দলের গাড়িতে একদল সন্ত্রাসী অতর্কিত হামলা করে এসময় সেনাবহিনীও প্রতি উত্তর দিতে পাল্টা গুলি শুরু করলে সন্ত্রাসীরা টিকতে না পেরে পালিয়ে যায়।পরে ঘটনাস্থল থেকে সুমন চাকমা নামের এক ব্যক্তির লাশ পাওয়া যায়।  

নিহত শান্তিময় চাকমা সাজেক ইউনিয়নের ডানবামে ছড়া এলাকার বীরু চাকমার ছেলে বলে জানা গেছে। সে ইউপিডিএফ এর স্বশস্ত্র শীর্ষ সন্ত্রাসী বলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়।

এছাড়া সে নানিয়ার চর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শক্তিমান চাকমা হত্যার অন্যতম আসামী বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads