• শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
চট্টগ্রাম ও কুমিল্লায় পূবালীর এটিএম বুথ থেকে টাকা চুরি

ছবি: ডিএমপি নিউজ

অপরাধ

চট্টগ্রাম ও কুমিল্লায় পূবালীর এটিএম বুথ থেকে টাকা চুরি

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২০ নভেম্বর ২০১৯

চট্টগ্রাম ও কুমিল্লায় পূবালী ব্যাংকের তিনটি বুথ থেকে জালিয়াতির মাধ্যমে প্রায় নয় লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

এটিএম বুথের সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়া দুইজনের ছবি প্রকাশ করে তাদের পরিচয় জানার জন্য সবার সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বলছে, গত রোববার চট্টগ্রাম কলেজ রোড শাখা ও আগ্রবাদের শেখ মুজিব রোডে দুটি বুথ এবং কুমিল্লার কান্দির পাড় বুধ থেকে জালিয়াতির মাধ্যমে টাকা তোলা হয়। তবে তা কোনো গ্রাহকের হিসাব থেকে তোলা হয়নি।

কুমিল্লার কান্দিরপাড় পূবালী বুথ থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার সময় সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়া একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের নিউজ পোর্টালে। সেখানে কোনো একটি চাবি দিয়ে এটিএম মেশিনের একটি অংশ খুলে বিশেষ কোনো যন্ত্রাংশ বসিয়ে পরে দুইজনকে টাকা তুলে নিতে দেখা যায় ওই ভিডিওতে।

পুলিশ ওই দুজনের ছবি প্রকাশ করেছে। পুলিশ তাদের খুঁজছে। দুজনের নাম, ঠিকানা ও পেশা সম্পর্কে জানানোর অনুরোধ করেছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে তথ্য জানাতে ফোন করতে বলা হয়েছে খিলগাঁও জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনারের নম্বরে।

এদিকে পূবালী ব্যাংকের চট্টগ্রাম কলেজ শাখার ব্যবস্থাপক মিনহাজ উদ্দিন সরোয়ার মঙ্গলবার সিএমপি’র চকবাজার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। সেখানে বলা হয়, ১৭ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৭টার মধ্যে কলেজ রোডের এটিএম বুথ থেকে ‘জালিয়াতি করে’ তিন লাখ ৩৪ হাজার টাকা তুলে নিয়েছে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি।

সিএমপি’র ডবলমুরিং থানায় জিডি করেন পূবালী ব্যাংক আগ্রাবাদ শাখার ব্যবস্থাপক সাহেদ আলী। শেখ মুজিব রোডের বুথ থেকে টাকা উত্তোলনের ঘটনায় সোমবার ডবলমুরিং থানায় আলাদা সাধারণ ডায়েরি করেছেন ওই শাখার ব্যবস্থাপক সাহেদ আলী। ডবলমুরিং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জহির হোসেন জানান, ১৭ নভেম্বর রাত সাড়ে ৮টা থেকে সাড়ে ৯টার মধ্যে ওই বুথ থেকে তিন লাখ ১০ হাজার টাকা তোলা হয়েছে জালিয়াতির মাধ্যমে।

এর আগে ২০১৬ সালে ঢাকায় একটি ডাচ-বাংলা ব্যাংকের বুথ থেকে একইভাবে টাকা তুলে নেওয়ার ঘটনা পোল্যান্ড নাগরিক পিউটর ডিবি পুলিশের হাতে ধরা পড়েছিল। চলতি বছরের ৩১ মে রাজধানীতে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ৯ টি বুথ থেকে ১৫ লাখ টাকা জালিয়াতি করে উত্তোলন করে ইউক্রেনের একটি চক্র। ওই ঘটনায় ইউক্রেনের ৬ জন নাগরিককে ডিবি পুলিশ গ্রেপ্তার করলেও এখন পর্যন্ত সেই টাকা উদ্ধার হয়নি।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads