• বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬
কেরানীগঞ্জে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ, ধর্ষক গ্রেপ্তার

প্রতীকী ছবি

অপরাধ

কেরানীগঞ্জে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ, ধর্ষক গ্রেপ্তার

  • কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৭ জানুয়ারি ২০২০

কেরানীগঞ্জে ৮ বছরের এক শিশু ধর্ষনের অভিযোগে পান বিক্রেতা সিদ্দিক মিয়াকে (৬০) আটক করেন দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন শুভাঢ্যা ইউনিয়নে ঝাড়বাড়ি এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে । এর পর রাত ৮ টায় স্বজনরা শিশুটিকে আহত আবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করেন।

ধর্ষিতা মেয়েটি ঝাউবাড়ি এলাকার জনৈক মাসুদ মিয়া (পাট ওয়ালা বাড়ী) স্ব-পরিবারে ভাড়া থাকে। মেয়েটির বাবার নাম সিদ্দিক।

জানা যায়, ধর্ষিতা শিশুটি কদমতলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী। সে মা-বাবার সাথে ঝাউবাড়ি এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন। গতকাল সন্ধায় শিশুটি বাসা থেকে বেড় হয়ে ধর্ষক পান বিক্রেতা সিদ্দিকের দোকানের কাছে আসলে খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে একটি পানের ডালা দিয়ে শিশুটিকে সিদ্দিক মিয়ার বাড়িতে পাঠায়। শিশুটি সিদ্দিক মিয়ার বাড়িতে গেলে সে (সিদ্দিক মিয়া) ও তার পিছু পিছু বাড়িতে যায়। ধারণা করা হচ্ছে সেখানে শিশুটিকে ধর্ষণ বা ধর্ষণের চেষ্টা করে।

শিশুটির মা রোকসানা বেগম জানান, সন্ধ্যার পরে তার মেয়ে বাহির থেকে ঘরে ফিরে ভয়ে কাউকে কিছু না বলে চুপ করে থাকে । হঠাৎ মেয়েটি অস্বাভাবিক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে আমি মেয়ের চিকিৎসার জন্য ব্যস্ত হয়ে পরি। এক পর্যায়ে মেয়ে আমাকে জানান পাশের পান দোকানদার সিদ্দিক মিয়া তাকে খাবারের লোভ দেখিয়ে বাসায় নিয়ে খারাব কাজ করেন। আমি সাথে সাথে মেয়েকে নিয়ে প্রথমে মিটফোর্ড হাসপাতাল পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করি।

এ ব্যাপারে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ শাহজামান জানান, শিশু ধর্ষণের খবর পেয়ে সাথে সাথে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ধর্ষক পানওয়ালা সিদ্দিককে আটক করি। ধর্ষিত শিশুটিকে দেখার জন্য ঢাকা মেডিকেল পরিদর্শন করেছি।

এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads