• শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

আনন্দ বিনোদন

হাত বাড়ালেন অনন্ত জলিল

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৯ এপ্রিল ২০১৮

রাজধানীতে দুই বাসের চাপায় ডানহাত হারিয়ে মৃত তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী রাজীব হোসেনের দুই ভাইয়ের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়ালেন চিত্রনায়ক অনন্ত জলিল। তাদের পড়ালেখার দায়িত্ব নিতে চান এই অভিনেতা।

মঙ্গলবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসে এ ঘোষণা দেন অনন্ত। স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘বন্ধুগণ, আসসালামু আলাইকুম। আজকের দিনে আল্লাহতায়ালা তার সুন্দর ধরণী আর সুন্দর সুন্দর সৃষ্টির মধ্যে আমাকে পাঠিয়েছেন। আজ আমার জন্মদিন, তাই শুকুর আলহামদুলিল্লাহ। রাব্বুল আল-আমিনের কাছে আমি কৃতজ্ঞ, এ কারণে যে এমন আনন্দের দিনে তিনি আমাকে সপরিবারে মক্কায় অবস্থান করার সুযোগ করে দিয়েছেন।’

অনন্ত জলিল লেখেন, ‘কিছুদিন আগে বাস দুর্ঘটনায় রাজীব নামে একজন মেধাবী শিক্ষার্থী তার হাত হারিয়েছিলেন। আজ তিনি পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছেন। যা আমাকে বেশ মর্মাহত করেছে। বাবা-মা হারা এই সন্তান তার ছোট দুই ভাইকে বাবা-মায়ের স্নেহ দিয়ে আগলে রেখেছিলেন। কিন্তু রাজীবের অকাল বিদায়ে তার দুই ছোটভাইয়ের ভবিষ্যৎ হুমকির মুখে পড়েছে। তাই আমার জন্মদিনে আমি চাচ্ছি, পরিবার-হারা এই দুই সন্তানের পড়ালেখার দায়িত্ব নিতে।’

৩ এপ্রিল রাজীব বাসে করে কলেজে যাচ্ছিলেন। বিআরটিসির দোতলা বাসের পেছনের গেটে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। ডানহাতটি বের হয়েছিল সামান্য বাইরে। হঠাৎই পেছন থেকে স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসির বাসটিকে অতিক্রম করার সময় বাঁ দিক গা ঘেঁষে পড়ে। এ সময় দুই বাসের চাপে রাজীবের হাতের অর্ধেক অংশ শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। দু-তিনজন পথচারী দ্রুত তাকে পান্থপথের শমরিতা হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু চিকিৎসকরা চেষ্টা করেও বিচ্ছিন্ন সে হাতটি রাজীবের শরীরে আর জুড়ে দিতে পারেননি। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৬ এপ্রিল, সোমবার রাতে ঢাকা মেডিক্যালের আইসিইউতে মারা যান রাজীব হোসেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads