• সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

আনন্দ বিনোদন

খেয়ালীর নাট্য রজনী

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৬ আগস্ট ২০১৮

‘আদব মোহাব্বতে গড়ে তুলি প্রেমময় বাংলাদেশ’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে খেয়ালী নাট্যগোষ্ঠী আয়োজন করতে যাচ্ছে চার দিনব্যাপী মূল্যবোধের নাট্য রজনী। ২৮ আগস্ট থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত চার দিনব্যাপী প্রতিদিন বিকাল ৬টা থেকে এই নাট্য রজনী আয়োজিত হবে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির স্টুডিও থিয়েটার হলে। আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক ও বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের চেয়ারম্যান নাট্যজন লিয়াকত আলী লাকী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কর্মসংস্থান ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবুল হোসেন, বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের সেক্রেটারি জেনারেল নাট্যজন কামাল বায়েজীদ, অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল নাট্যজন চন্দন রেজা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন খেয়ালী নাট্যগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি নাট্যজন এ কে এ কবীর।

এই আয়োজন সম্পর্কে খেয়ালী নাট্যগোষ্ঠীর সভাপতি বলেন, ‘মো. ইউনুস দলের একনিষ্ঠ একজন কর্মী ছিলেন। ক্যানসারের কাছে পরাজিত হয়ে তার এভাবে আমাদের ছেড়ে চলে যাওয়ায় আমরা সবাই অত্যন্ত ব্যথিত। তার অভাব অপূরণীয়। এই নাট্য রজনীর মাধ্যমে আমরা তাকে স্মরণ করতে চাই।’

চার দিনব্যাপী মূল্যবোধের এই নাট্য রজনীতে আকর্ষণীয় বিষয়ই হচ্ছে- প্রতিদিন এক টিকেটে তিনটি নাটকের প্রদর্শনী করা। প্রতিদিন তিনটি করে দল এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে। এই নাট্য আয়োজনে আয়োজক খেয়ালী নাট্যগোষ্ঠী তিনদিন তিনটি নাটক— যুদ্ধ যুদ্ধ!, বটতলার পাগলা এবং ফকির আলীর গায়েবী জানাযা মঞ্চায়ন করবে। আয়োজক দলের নাটকের পাশাপাশি আরো মঞ্চায়িত হবে— বাঙলা নাট্যদলের নাটক ‘মেঘ’, চন্দ্রকলা থিয়েটারের ‘স্বপ্নের তরী’, সংলাপ গ্রুপ থিয়েটারের ‘মানব সুরৎ’, রঙ্গনা নাট্যগোষ্ঠীর ‘কালের সাক্ষী’, স্বরবীথি থিয়েটারের ‘শাস্তি’, অবয়ব নাট্যদলের ‘নিশূন্য অঞ্চল’, সুষম নাট্য সম্প্রদায়ের ‘গয়না’ এবং মুক্তালয় নাট্যাঙ্গনের ‘মুক্তি’। পুরো আয়োজনে সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি এবং বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশান।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads