• বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
৮টি ব্লক ছিল হার্টে

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

সংরক্ষিত ছবি

আনন্দ বিনোদন

৮টি ব্লক ছিল হার্টে

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৩ জানুয়ারি ২০১৯

হূদরোগে আক্রান্ত হয়ে গতকাল মঙ্গলবার ভোরে নিজ বাসাতেই না ফেরার দেশে চলে গেছেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগের আগে তার ব্যক্তিগত সহকারীকে ফোন করেছিলেন বুলবুল। সহকারী রোজেন বলেন, ভোর ৪টার দিকে স্যার আমাকে ফোন করে বলেন, ‘তাড়াতাড়ি বাসায় আসো, আমার হার্টঅ্যাটাক হয়েছে।’ ফোন রাখার ১০-১৫ মিনিটের মধ্যে আমি স্যারের বাসায় যাই। কিন্তু গিয়ে তার কোনো পালস পাইনি।

বুলবুলের সঙ্গে আর কোনো কথা বলার সুযোগ হয়নি উল্লেখ করে রোজেন আরো জানান, পরে বুলবুলকে দ্রুত রাজধানীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ভোর ৫টা ৩০ মিনিটের দিকে হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আশীষ চক্রবর্তী গণমাধ্যমকে বলেন, হার্ট অ্যাটাকেই মৃত্যু হয়েছে আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা শেষে চিকিৎসকরা এটি নিশ্চিত হয়েছেন। হাসপাতালে আনার আগেই তিনি মারা যান।

জানা গেছে, গত বছরের মাঝামাঝিতে আটটি ব্লক ধরা পড়ে আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের হার্টে। সে সময় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার দায়িত্ব নেন। প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব নেওয়ার পর হূদরোগ ইনস্টিটিউটে ভর্তি করানো হয় বুলবুলকে। চিকিৎসকরা তার হার্টে রিং পরানোর সিদ্ধান্ত নেন। বুলবুলের হার্টে দুটি রিং স্থাপন করেন হূদরোগ ইনস্টিটিউটের পরিচালক পরিচালক ডা. অধ্যাপক আফজালুর রহমান। সুস্থ হয়ে সে সময় বাসায় ফিরেছিলেন বুলবুল। এরপর থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত নিজ বাসাতেই থাকতেন বুলবুল।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads