• রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৫
ads
দীর্ঘ বিরতির পর ফিরলেন মিলা

কণ্ঠশিল্পী মিলা

ছবি : সংগৃহীত

আনন্দ বিনোদন

দীর্ঘ বিরতির পর ফিরলেন মিলা

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৮ মার্চ ২০১৯

মাউথপিস হাতে হাজারো দর্শক-শ্রোতার সামনে সরাসরি গান গাওয়ার জায়গাটিই সবচেয়ে প্রিয় রকস্টার মিলার। দীর্ঘ দুই বছর বিরতি শেষে তাই স্টেজের মাধ্যমে গানের জগতে ফিরলেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে মিলা বলেন, ‘গানে ফিরে বুঝলাম, দর্শক-শ্রোতাদের কাছে আমার ন্যূনতম আবেদন ফুরিয়ে যায়নি। বরং বেড়েছে। দীর্ঘদিন পর মঞ্চে ফিরে হাজার মানুষের উপস্থিতি দেখে নিজের মধ্যে অন্যরকম একটা ভালোলাগা কাজ করেছে। মনে হয়েছে, গানই আমার সব। গান ছাড়া আমি মূল্যহীন। আমি গানের সঙ্গেই থাকতে চাই। গান নিয়েই থাকতে চাই। আমি আর আমার ভক্ত-অনুরাগী এবং শ্রোতাদের বঞ্চিত করতে চাই না।’

গান নিয়ে সামনে পরিকল্পনা সম্পর্কে মিলা বলেন, ‘আজীবন গান করে যেতে চাই। গানের পাশাপাশি সামনে মানুষের জন্য সরাসরি কাজ করার ইচ্ছা আছে।’

এখন মানুষের সেবা করার জন্য, তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য নিজেকে তৈরি করছেন মিলা। বলেন, ‘নিজের জীবন থেকে অনেক কিছু শিখেছি। অন্যের কষ্টের তীব্রতা এখন আমি অনুবাধন করতে পারছি। তাই আমার জীবনের কঠিন-করুণ এই শিক্ষাকে কাজে লাগাতে চাই বঞ্চিত নারীদের পাশে দাঁড়ানোর মাধ্যমে। মানুষের সেবা কিংবা পাশে দাঁড়ানোর জন্য ইচ্ছাশক্তিই যথেষ্ট। আমার ইচ্ছাশক্তি প্রবল। আর সেই শক্তিকে শাণিত করার জন্য কিছু পরিকল্পনা তো করছি।

দীর্ঘ ১০ বছরের প্রেমের অবসান ঘটিয়ে ২০১৭ সালের ১২ মে পারিবারিকভাবে বৈমানিক পারভেজ সানজারির সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন মিলা ইসলাম। বিয়ের তিন দিন পর থেকেই দ্বন্দ্ব-বিবাদে যুক্ত তারা। দিন দিন বাড়তে থাকে দ্বন্দ্ব-বিবাদ। বিয়ের মাস চারেক পর এ বিষয়ে প্রকাশ্যে আসেন মিলা এবং নারী নির্যাতন-যৌতুকের অভিযোগে সানজারির বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি। অবশ্য ভালোবেসে বিয়ে করা প্রিয় মানুষের সঙ্গে মান-অভিমান ভুলে দুইয়ে মিলে আবার এক হতে চেয়েছিলেন মিলা। কিন্তু সেটা একান্তই মিলার ইচ্ছা, একপাক্ষিক। সানজারির আপত্তির কারণে তা আর হয়নি।

মিলা তার অতীতকে ভুলে যেতে চান না। তবে পেছনে পড়ে থেকে নয়, সামনে এড়িয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে অতীতকে লালন করবেন তিনি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads