• বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ২০১৮

সুপার শপ বা চেইন শপে কেনাকাটায় সুবিধার পাশাপাশি রয়েছে কিছু অসুবিধাও

ছবি সংরক্ষিত

ফিচার

ভোক্তাদের কথা

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০১ জুলাই ২০১৮

দিন দিনই বাড়ছে সুপার শপ বা চেইন শপে কেনাকাটার প্রবণতা। সহজলভ্য, একই জায়গায় প্রয়োজন ও চাহিদার প্রায় সব পণ্য পাওয়াসহ রয়েছে বেশকিছু সুবিধা। সুবিধার পাশাপাশি অসুবিধা যে একেবারেই নেই এমনটা নয়। সুপার শপ থেকে দৈনন্দিন জিনিসপত্র ক্রয়ের নানা সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে কয়েকজন ভোক্তার সঙ্গে কথা বলেছেন সৈয়দ ফয়জুল আল আমীন

দেশীয় পণ্যের বিক্রি বাড়ানো উচিত

মোহাম্মদ ইকবাল, টিভি অনুষ্ঠান নির্মাতা, ধানমন্ডি

দেশে চেইন শপের ধারণাটা সামগ্রিকভাবে ভালো ও সুবিধাজনক। এ ব্যবস্থায় ভালো পরিবেশে কেনাকাটা করার সুযোগ থাকার কারণে মহিলারাও নির্বিঘ্নে ছুটে যান। তবে এসবের উদ্যোক্তারা বিদেশি পণ্যের প্রতি জোর দেন বেশি।

অবশ্য বিদেশি পণ্যের প্রতি ভোক্তাদেরও এক ধরনের দুর্বলতা রয়েছে, যা কাম্য নয়। বরং এসব প্রতিষ্ঠানে দেশি পণ্যের সংগ্রহ ও বিক্রি বাড়ানো উচিত। বিশেষ করে তৃণমূল থেকে পোল্ট্রি, ডেইরি ও কুটির শিল্পজাত পণ্য সংগ্রহ করে বিক্রির ব্যবস্থা করলে আমরা সবাই লাভবান হব।

পণ্যের দাম মোটামুটি স্থির থাকে

মো. মঈনুল ইসলাম, ব্যবসায়ী, উত্তরা

রাজধানীতে চেইন শপগুলোয় পণ্যের মান ভালো, দামদরের ঝামেলা নেই। তবে ভালো পরিবেশে কেনাকাটার জন্য আমরা সুপার শপগুলোর ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছি। সার্বিকভাবে আমাদের দেশে চেইন শপগুলোতে ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে কেনাকাটার সুযোগ থাকাটা খুবই ভালো দিক।

পণ্যের দাম মোটামুটি স্থির থাকে। অবশ্য ভ্যাট যোগ করা হয় বলে কিছু পণ্যের দাম সামান্য বেশি হয়। তবে পণ্যের গুণগতমান ভালো হওয়ায় দাম একটু বেশি হলেও সমস্যা নেই।

খাতটি সম্প্রসারণের সুযোগ রয়েছে

নাজমুন নাহার স্মৃতি, শিক্ষিকা, মোহাম্মদপুর

আমি সুপার শপ কিংবা খুচরা বাজার দুই জায়গাতেই বাজার করি। তবে সাম্প্রতিক সময়গুলোতে সুপার শপেই বেশি আনাগোনা। দরদাম করতে হয় না, আর এক জায়গাতেই প্রয়োজনীয় সব কিছু পেয়ে যাচ্ছি। এসব কারণেই সুপার শপের ওপর নির্ভরশীলতা বেড়ে যাচ্ছে। বাসার কাছাকাছি হওয়ায় আগোরা, স্বপ্ন থেকেই সাধারণত কেনাকাটা করি। আমি মনে করি, নাগরিক ব্যস্ততায় এই খাতটি আরো বিপুলভাবে সম্প্রসারিত হওয়ার সুযোগ রয়েছে।

নগদ টাকার প্রয়োজন পড়ে না

কাজী নাসীদ রাহাত, চাকরিজীবী, টঙ্গী

হোক সেটা মাছ, মাংস, মুদি, ক্রোকারিজ কিংবা কসমেটিকস— কী নেই এখানে। এ জন্য ঘরের গৃহিণীদেরও পছন্দের জায়গা সুপার শপ। কার্ডের ব্যবহারের সুযোগ থাকায় নগদ টাকা সঙ্গে রাখার প্রয়োজন পড়ে না। তবে যখন দেখি কিছু কিছু সুপার শপ ভেজাল ও মেয়াদ-উত্তীর্ণ পণ্য রাখার জন্য জরিমানা দেয়, তখন আমাদের বিশ্বাসের জায়গাটা নষ্ট হয়ে যায়। আবার কিছু কিছু আমদানি করা পণ্যের মূল্য অনেক বেশি রাখা হয়। যা আমাদের পণ্য কিনতে নিরুৎসাহিত করে।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads