• রবিবার, ২৬ মে ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
সফল নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদার 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদার

ছবি : বাংলাদেশের খবর

ফিচার

সফল নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদার 

  • আসাদুজ্জামান আসাদ, ফুলবাড়িয়া (ময়মনসিংহ)
  • প্রকাশিত ০২ ডিসেম্বর ২০১৮

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে যোগদানের পর থেকেই সাধারণ মানুষের অভাব-অভিযোগ, আবেদন-নিবেদন শুনছেন এবং তাৎক্ষণিক নিষ্পত্তি করে জনগণকে সেবা প্রদান করে যাচ্ছেন। এ ছাড়া তিনি মোবাইলে বা লিখিতভাবে  বিভিন্ন অভিযোগ এবং আবেদন নিবেদন নিষ্পত্তি করেছেন। এতে জনদুর্ভোগ লাঘবসহ সরকারের প্রতি জনগণের ইতিবাচক মনোভাব তৈরি করেছেন। তিনি বর্তমান সরকারের গৃহীত নানামুখী পদক্ষেপ সমাজ থেকে মাদক, সন্ত্রাস, দুর্নীতি, নারী নির্যাতন ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে প্রশংসনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। শিক্ষার ক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণের হার আরো বাড়ানোর লক্ষ্যে বাল্যবিয়ে, ইভটিজিং রোধ, নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিভিন্ন সভা-সেমিনার করে জনমত গড়ে তোলেন। এসব বিষয়ে সফলতা পেতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ছাড়াও বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তারা যাতে নিয়মিত পরিদর্শন করেন, সে ব্যাপারে উৎসাহ দেন নির্বাহী কর্মকর্তা। তিনি ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক পৌঁছানোর লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক বইগুলো বিদ্যালয়ে পৌঁছে দেওয়ার জন্য সার্বক্ষণিক সম্পৃক্ত ছিলেন। উপজেলা প্রশাসন নিবিড় সম্পৃক্ততার কারণে যথাসময়ে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে পাঠ্যপুস্তক পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। এতে ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক ছাড়াও সর্বস্তরের জনগণ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। বিদ্যালয় থেকে ঝরেপড়া রোধে ছাত্রছাত্রীদের উপবৃত্তি প্রধান কার্যক্রম নিবিড়ভাবে তদারকি করেছেন। এ ছাড়া লীরা তরফদার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নির্মাণ ও সংস্কার কার্যক্রমে সরাসরি সম্পৃক্ত থেকে উন্নয়ন করেছেন। তার নেতৃত্বে এ বছর সম্পূর্ণ নকলমুক্ত পরিবেশে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পড়াশোনার উপযোগী একটি আবহ তৈরি হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ায় সরকারের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে।

ফুলবাড়িয়া পৌর বাজারে পাঁচ-ছয় বছর ধরে অবস্থান করছিল বাকপ্রতিবন্ধী পাগলনী। কোনো নরপশুর লালসার কারণে একসময় হয়ে পড়ে সন্তানসম্ভবা। এ ঘটনার পর আশ্রয় মেলে এক দিনমজুরের ঘরে। সংবাদমাধ্যমে ঘটনাটি শোনার পরে ছুটে যান নির্বাহী কর্মকর্তা। সুচিকিৎসার খরচ ও নিরাপদ আশ্রয়ের ব্যবস্থা করে দেন তিনি।

২ নং পুঠিজানা ইউনিয়নের তেজ পাঠুলী গ্রামে ছেলেরা মা মরিয়মকে (৮০) ঘরে না রেখে গোয়ালঘরে রেখেছিলেন। শিয়ালের দল কামড়ে তাকে ক্ষতবিক্ষত করেছিল। তারপরও বিনা চিকিৎসায় দিনাতিপাত করছিল বৃদ্ধ মা। সংবাদমাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। বহুল আলোচিত এ ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধীদলীয় নেতা এবং সংসদ সদস্যসহ উপজেলার সব শ্রেণির মানুষ তার কর্মকাণ্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেছিলেন। উপজেলার আছিম অ্যারাইজ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদারের সুদক্ষ পরিচালনায় উপজেলার সার্বিক উন্নয়নের জন্য তাকে নিজ কন্যা হিসেবে আখ্যায়িত করে তার প্রশংসা করেন।  ময়মনসিংহ বিভাগের ৩৪ উপজেলার মধ্যে সর্বোচ্চ জাকাত আদায়কারী হিসেবে শ্রেষ্ঠ নির্বাহী অফিসার নির্বাচিত হয়েছেন ফুলবাড়িয়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার লীরা তরফদার।

বাংলাদেশের গৌরবময় অগ্রযাত্রায় নারীর অগ্রগতিতে নতুন বার্তা দিচ্ছেন লীরা তরফদার।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads