• শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads

ফিচার

তরুণ উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্ম

নিজের বলার মতো একটা গল্প

  • এস এম মুকুল
  • প্রকাশিত ২৫ জানুয়ারি ২০২০

‘স্বপ্ন দেখুন, সাহস করুন, শুরু করুন এবং লেগে থাকুন, সাফল্য আসবেই’—এই স্লোগানে বিপুল জনপ্রিয় তারুণ্যের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে ফেসবুকভিত্তিক সংগঠন ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’। তরুণ-তরুণীদের নিয়ে উদ্যোক্তাবিষয়ক অনলাইন কর্মশালা ও প্রশিক্ষণের বিশাল নেটওয়ার্ক গড়ে উঠেছে সংগঠনটির। এর শাখা ছড়িয়ে পড়েছে দেশের ৬৪ জেলায় এবং বিশ্বের ৫০টি দেশে। নতুন উদ্যোক্তারা তাদের কার্যক্রম কীভাবে পরিচালনা করবে, ব্যবসা করবে, পরিবেশন ও প্রকাশ করার উপায় এবং নিজেকে উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার প্রতিটি পদক্ষেপে কীভাবে বাধা পেরুবে সেসব বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে ‘নিজের বলার মতো একটি ‘গল্প’ সংগঠন। সংগঠনটি সারা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তরুণ-তরুণীদের এক ছাতার নিচে নিয়ে আসার চেষ্টা করছে।

সম্প্রতি আয়োজিত ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ প্ল্যাটফর্মের উদ্যোক্তা সম্মেলনে ‘কি-নোট স্পিকার’ হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কোডার্সট্রাস্টের কো-ফাউন্ডার ও চিফ স্ট্র্যাটেজিস্ট আজিজ আহমদ। প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার ও বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের সাবেক এবং বর্তমান মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। সম্মেলনটি পরিচালনা করেন ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ প্ল্যাটফর্মের প্রতিষ্ঠাতা ইকবাল বাহার জাহিদ। দেশ ও  দেশের বাইরে থেকে প্রায় চার হাজার তরুণ উদ্যোক্তা এই সম্মেলনে যোগ দেয় বলে উদ্যোক্তাদের সূত্র থেকে জানানো হয়। BASIS-এর সভাপতি, ISPAB -এর জিএস, BACCO’র জিএস, NBA’র সভাপতি ও জিএসসহ সমাজের অনেক গুণীজন এ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

উদ্যোক্তা টিমের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দেশের লাখ লাখ তরুণ প্রজন্মকে উদ্যোক্তা হতে প্রশিক্ষণ, সহায়তা এবং সাহস জোগাতে কাজ করছে ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’। ব্যতিক্রম বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে এই সংগঠনটির উদ্যোক্তা ইকবাল বাহার জাহিদ তিনটি কাজ করছেন বলে তারা জানিয়েছেন। কাজ তিনটি হলো- ৬৪ জেলা এবং ৫০টি দেশের প্রবাসী বাংলাদেশিসহ প্রায় দেড় লাখ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান, টানা ৯০ দিনের অনলাইনে অংশগ্রহণমূলক কর্মশালা (ঈদের দিনসহ প্রতি শুক্র ও শনিবার) এবং এই পুরো কার্যক্রমটি পরিচালিত হচ্ছে বিনামূল্যে।

সংগঠনটির প্রধান ইকবাল বাহার জাহিদের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, ‘চাক‌রি করব না চাক‌রি দেব’ এই মূলমন্ত্র‌কে সাম‌নে রেখে যাত্রা শুরু হয় ‘নি‌জের বলার মতো একটা গল্প’। প্রথ‌মে ৬৪ জেলা থে‌কে ১৬৪ জন‌কে নি‌য়ে ফ্রি‌তে টানা ৯০ দিনের অনলাই‌ন কর্মশালা শেষ করার পর গ্রুপের ব্যাপকতা বৃ‌দ্ধি পায়। তারপর থে‌কে প্র‌তি ৯০ দি‌নে এক এক‌টি ব্যাচ ক‌রে পরিচালিত হচ্ছে কর্মশালা। লক্ষা‌ধিক যুবক-যুব‌তী দেশ এবং বি‌দেশ থে‌কে প্র‌তি‌দিন অনলাইন কর্মশালায় যুক্ত হ‌ন।

মজার ব্যাপার হলো, ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে সাফল্যের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ২ লাখ তরুণ-তরুণী।  উদ্যোক্তাদের মতে, দেশের ৬৪টি জেলা এবং ৫০টি দেশে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশিদের অংশগ্রহণে এ প্ল্যাটফর্ম এখন দেশের বৃহত্তম অনলাইন ‘উদ্যোক্তা’ প্রশিক্ষণ কেন্দ্র হিসেবে দাঁড়িয়েছে। সংগঠনটির দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি হয়ে গেল ৪ জানুয়ারি মিরপুর ইনডোর স্টেডিয়ামে। এখানে সমবেত হয়েছিলেন প্রায় চার হাজার তরুণ উদ্যোক্তা। এখানে উদ্যোক্তাদের ১৫০টি স্টল স্থান পায়। পুরো আয়োজনে মিডিয়া পার্টনার ছিল চ্যানেল টোয়েন্টিফোর।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার তরুণ উদ্যোক্তাদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনাদের সফলতার গল্পই হবে আগামী দিনে বাংলাদেশের গল্প।’ স্টিভস জবসের উদাহরণ দিয়ে মন্ত্রী বলেন, স্টিভস জবস একবেলা খেতে পেতেন না, রাতে ঘুমানোর জায়গা ছিল না। সে অবস্থান থেকে তিনি অ্যাপলের মতো বিশ্বখ্যাত প্রতিষ্ঠান গড়ে দুনিয়াকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। প্রকৃতপক্ষে শূন্য থেকে শুরু করে যিনি শীর্ষে যান, তিনিই প্রকৃত বড় মানুষ। আপনি আজ শূন্য হতে পারেন, কিন্তু আপনার চেষ্টা আর অদম্য ইচ্ছা আপনাকে শীর্ষে তুলে দেবে।’

অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের সদ্য সাবেক এবং বর্তমান মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম বলেন, একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে এত বিপুলসংখ্যক উদ্যোক্তা তৈরি করা যায়, এটা সত্যিই অবাক করার মতো বিষয়। অনলাইনের যথাযথ ব্যবহার হলে তার সুফল জনজীবনকে কীভাবে বদলে দিতে পারে এটা তারই প্রমাণ। তরুণদের উদ্দেশে তিনি বলেন, খুব সকালে ঘুম থেকে ওঠে কাজ শুরু করতে হবে। দিনের শুরুতে কাজ ধরলে দিনটা অনেক বড় হয়। আজকের যে কাজ তা কখনো কালকের জন্য ফেলে রাখা যাবে না। সফলতা মেধা ও শ্রমের সমন্বয়-একথাটা মনে রাখতে হবে।

জানা গেছে, দেশে যখন বেকার ও শি‌ক্ষিত বেকা‌রের সংখ্যা ক্রমান্ব‌য়ে বে‌ড়ে চল‌ছে। ঠিক তখন ব্যক্তি উদ্যো‌গে একজন অনলাই‌নে সম্পূর্ণ ফ্রি‌তে উদ্যোক্তা তৈরি করার কর্মশালা শুরু ক‌রেন গ্রু‌পের প্র‌তিষ্ঠাতা ইকবাল বাহার জা‌হিদ। তি‌নি নি‌জে ব্যবসায়িক জীব‌নে সফল। তাই তি‌নি সবাই‌কে চাক‌রির পেছ‌নে না ছু‌টে নিজ উদ্যোগে কিছু শুরু করার আহ্বান জানান। ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ প্ল্যাটফর্মের প্রতিষ্ঠাতা ও অপটিম্যাক্স কমিউনিকেশনের প্রধান নির্বাহী ইকবাল বাহার বলেন, দেশে তরুণ উদ্যোক্তা তৈরি করার স্বপ্ন নিয়ে দুই বছর আগে তারা প্রতিষ্ঠা করেন ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ নামের এই প্ল্যাটফর্ম। প্রথমে এর সদস্য সংখ্যা ছিল মাত্র ১৬৪ জন। বর্তমানে ২ লাখ তরুণ শুধু উদ্যোক্তা নন, তারা দক্ষ এবং ইতিবাচক মানুষ।

অনুষ্ঠানে ইকবাল বাহারের লেখা ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ বইয়ের নতুন সংস্করণের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এ ছাড়া আর্থিক প্রতিষ্ঠান ‘আইপিডিসি’ এবং অ্যাপভিত্তিক সেবা প্রতিষ্ঠান ‘সেবা এক্সওয়াইডেজের’ দুটি সমঝোতা স্মারক সই হয় ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে। আইপিডিসির প্রধান নির্বাহী মমিনুল ইসলাম ঘোষণা দেন, ‘নিজের বলার মতো একটা গল্পে’র উদ্যোক্তারা বিনা জামানতে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ পাবেন আইপিডিসি থেকে। অনুষ্ঠানে উদ্যোক্তাদের ‘সেবা এক্সওয়াইজেডে’র ফ্রি সাবস্ক্রিপশনের সুযোগ দেওয়া হয় উদ্যোক্তাদের।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads