• বৃহস্পতিবার, ৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
বাংলাদেশ আর্ট উইক এর ‘ওরা ১১ জন’

সংগৃহীত ছবি

ফিচার

বাংলাদেশ আর্ট উইক এর ‘ওরা ১১ জন’

  • সালেহীন বাবু
  • প্রকাশিত ২১ মার্চ ২০২০

ঢাকা গ্যালারিতে ‘বাংলাদেশ আর্ট উইক’-এর উদ্যোগে মোট ১১ জন নারী চিত্রশিল্পীকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো ‘ওরা ১১ জন’। বাংলাদেশের প্রথিতযশা নারী চিত্রশিল্পীদের পাশাপাশি নতুন নারী চিত্রশিল্পী দুজনসহ মোট ১১ জনের এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

এর উদ্যোক্তা বাংলাদেশ আর্ট উইকের প্রতিষ্ঠাতা নীহারিকা। তিনি বলেন, ‘আমি থাকি দুবাইতে। আমি মূলত ডিজাইনার। ছোটবেলায় আমি আর্টের খুব ভক্ত। আমি দেখেছি আমাদের চট্টগ্রামে চিত্রশিল্পের প্রসারের জন্য চট্টগ্রাম আর্ট কলেজ ছাড়া অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান নেই। তাই আমি ভাবলাম, চট্টগ্রামে চিত্রকলার প্রসার কীভাবে বাড়ানো যায়। পাশাপাশি এই দেশে চিত্রশিল্পের পৃষ্ঠপোষকতা কীভাবে করা যায়। এই ভেবে শুরু করলাম বাংলাদেশ আর্ট উইক। নতুন চিত্রশিল্পীদের সুযোগ করে দেওয়াও আমাদের আরেকটি মূল উদ্দেশ্য। আমাদের এবারের প্রদর্শনীতে দুজন নতুন চিত্রশিল্পীর আঁকা চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হয়েছে। তারা হলেন, ফারজানা হক, রুমানা রহমান। নতুন এই দুজন জুরিবোর্ডের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়েছেন। জুরিবোর্ডে ছিলেন রনবীর, শিশির ভট্টাচার্য ও প্রণব চৌধুরী।’

এই প্রদর্শনীতে চিত্রকর্মের পাশাপাশি গ্রিন আর্কিটেকচার, টক শো, আর্টিস্ট ট্যুর অনুষ্ঠিত হয়। প্রথিতযশা ভাস্কর্যশিল্পী হামিদুজ্জামানের সঞ্চালনায় লাইফ আর্ট শো অনুষ্ঠিত হয়।

এই প্রদর্শনীতে শিল্পীদের মধ্যে ছিলেন ফরিদা জামান, রোকেয়া সুলতানা, আইভি জামান, দিলারা বেগম জলি, কনকচাঁপা চাকমা, প্রিমা নাযিয়া আন্দালীব, আয়েশা সুলতানা, সালমা আবেদীন পৃথী, ফারজানা হক, রুমানা রহমান। ডিজাইনার ছিলেন  একজন। তিনি হলেন তাসনিম তারেক।

এই প্রদর্শনী সম্পর্কে ভাস্কর্যশিল্পী হামিদুজ্জামান বলেন, ‘এই প্রদর্শনীতে ১১ জন শিল্পীর চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হয়েছে। আমার দেখে ভালো লেগেছে। আসলে আমাদের দেশের কৃষ্টিকলার সঙ্গে চিত্রকর্মের রয়েছে নিবিড় সম্পর্ক। দেশীয় চিত্রকলা আগে থেকেই সমৃদ্ধ। তবে এই কলাকে আরও এগিয়ে নিতে হবে। নতুনদের মধ্যে অনেকে এই ধারায় আসছে। একজন চিত্রশিল্পী হিসেবে আমি আশা করি নতুন প্রজন্ম আরো চিত্রকলার দিকে ঝুঁকবে।’

ভাস্কর্যশিল্পী আইভি জামান বলেন, ‘বাংলাদেশের চিত্রশিল্পের প্রসারে বাংলাদেশ আর্ট উইকের এই উদ্যোগকে আমি সাধুবাদ জানাই। বিশেষ করে নারী শিল্পীদের নিয়ে করা এই প্রদর্শনীর ফলে নারী চিত্রশিল্পীরা আরও উজ্জীবিত হবে। নতুন দুজন নারী চিত্রশিল্পীর জন্য আমার শুভকামনা রইল। এভাবে আরো আয়োজন যাতে বাংলাদেশ আর্ট উইকের উদ্যোগে হয় সেই কামনা করি।’

এর আগে গেল বছর চট্টগ্রাম চারুকলায় বাংলাদেশ আর্ট উইকের উদ্যোগে ‘পাওয়ার অফ নাইন’ চিত্রপ্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। ওই প্রদর্শনীতে প্রথম প্রতিবন্ধী চিত্রশিল্পীরাও অংশগ্রহণ করে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads