• সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

খাদ্য

তারুণ্য ধরে রাখে যে খাবারগুলো

  • প্রকাশিত ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সুস্থ থাকতে এবং তারুণ্য ও যৌবন ধরে রাখতে পুষ্টিকর খাবারের কোনো বিকল্প নেই। এমন কিছু খাবার আছে, যা নিয়ম করে খেলে আপনার যৌবন থাকবে অটুট। জেনে নিন এমন কিছু খাবার সম্পর্কে। লিখেছেন শিলুফা এ. শিল্পী

দুধ

শারীরিক শক্তি বৃদ্ধি এবং যৌবন ধরে রাখতে দুধের ভূমিকা অতুলনীয়। এর রহস্য হলো এই যে, দুধ রতিশক্তি সৃষ্টি করে, দেহের শুষ্কতা দূর করে, দ্রুত হজম হয়ে খাদ্যের স্থলাভিষিক্ত হয়, বীর্য সৃষ্টি করে, চেহারায় লাল বর্ণ তৈরি করে, দেহের অপ্রয়োজনীয় দূষিত পদার্থ বের করে দেয় এবং মস্তিষ্ক শক্তিশালী করে।

 

বাদাম ও বিভিন্ন বীজ

কুমড়ার বীজ, সূর্যমুখীর বীজ, চিনাবাদাম, কাজু বাদাম, পেস্তা বাদাম ইত্যাদিতে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট আছে এবং এগুলো শরীরে উপকারী কোলেস্টেরল তৈরি করে। সেক্স হরমোনগুলোর ঠিকমতো কাজ করার জন্য এই কোলেস্টেরল অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

 

ডিম

ডিমে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি-৫ ও বি-৬ আছে যা শরীরের হরমোনের কার্যক্রম ঠিক রাখে এবং মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে। প্রতিদিনের সকালের নাশতায় একটি করে ডিম রাখলে আপনার শরীর শক্তি পাবে এবং যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

 

মধু

সকালে খালি পেটে মধু খেলে কফ দূর হয়, পাকস্থলী পরিষ্কার হয়, দেহের অতিরিক্ত দূষিত পদার্থ বের হয়, গ্রন্থ খুলে দেয়, পাকস্থলী স্বাভাবিক হয়ে যায়, মস্তিষ্ক শক্তিলাভ করে, স্বাভাবিক তাপে শক্তি আসে, যতিশক্তি বৃদ্ধি পায়, মূত্রথলির পাথর দূর হয়, প্রস্রাব স্বাভাবিক হয়, গ্যাস নির্গত হয় ও ক্ষুধা বৃদ্ধি পায়।

 

দই

দই আমাদের অনেকের কাছে খুব প্রিয় একটি খাবার। দই মেদ ও কোলেস্টেরল কমাতে সহায়তা করে। যারা যৌবন ধরে রাখতে চান, তারা নিয়মিত দই খান। দইয়ে প্রচুর প্রোটিন ও ক্যালসিয়াম আছে যা শরীরের গঠন ভালো রাখে এবং হাড়ের ক্ষয় রোধ করে। দই বয়সজনিত কারণে হওয়া রোগ প্রতিরোধ করে। এ ছাড়া দই ত্বককে রাখে বলিরেখামুক্ত। তাই যৌবন ধরে রাখতে চাইলে প্রতিদিন দই খান।

 

রঙিন শাকসবজি

রঙিন শাকসবজিতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন যা শরীরের চাহিদা মেটায় এবং শরীর সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। নিয়মিত রঙিন শাকসবজি খেলে আপনার যৌবন থাকবে অটুট।

 

কলা

কলায় রয়েছে ভিটামিন এ, বি, সি ও পটাশিয়াম। পটাশিয়ামের অভাবে ত্বক রুক্ষ হয়, কলা সেই পটাশিয়ামের অভাব পূরণ করে। ভিটামিন বি ও পটাশিয়াম মানবদেহের যৌনরস উৎপাদন বাড়ায়। আর কলায় রয়েছে ব্রোমেলিয়ানও যা শরীরের টেসটোস্টেরনের মাত্রা বাড়াতে সহায়ক এবং যৌবন ধরে রাখতে অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা  রাখে।

ডার্ক চকোলেট

যারা চকোলেট ভালোবাসেন, তাদের জন্য ভালো খবর হলো- ডার্ক চকোলেট বয়স ধরে রাখতে সহায়তা করে। ডার্ক চকোলেটে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আছে। তাই যারা নিয়মিত প্রতিদিন ছোট এক টুকরো ডার্ক চকোলেট খান, তারা দীর্ঘদিন যৌবন ধরে রাখতে পারেন।

 

কমলালেবু

কমলালেবু খাওয়া শরীরের জন্য খুবই ভালো। কারণ এতে অনেক ভিটামিন-সি থাকে। ত্বক টানটান রাখতে কমলালেবু সাহায্য করে।

 

মিষ্টিকুমড়ার বিচি

এতে আছ প্রচুর সাইটোস্টেরোল। এটি পুরুষের দেহে টেসটোস্টেরন হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা করে। এর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ফ্যাটি অ্যাসিড পুরুষের শক্তি বাড়ায়। পুরুষের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক।

 

ফলমূল

ফলে আছে প্রচুর ফাইবার, ভিটামিন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যা শরীরে পুষ্টি জোগায় ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই যৌবন ধরে রাখতে চাইলে নিয়মিত ফল খান।

 

অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েল আপনার যৌবন ধরে রাখতে সাহায্য করবে। রান্নায় অলিভ অয়েল ব্যবহার করলে শরীরে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমে যায় এবং সহজে মেদ জমে না। এ ছাড়া প্রতিদিন ঘুমাতে যাওয়ার আগে ত্বকে অলিভ অয়েল ম্যাসাজ করে ঘুমালে ত্বকে বলিরেখা পড়ে না। ফলে দীর্ঘদিন যৌবন ধরে রাখা যায়।

 

সামুদ্রিক মাছ

সামুদ্রিক মাছ যৌবন ধরে রাখতে সহায়ক। দীর্ঘদিন যৌবন ধরে রাখতে চাইলে নিয়মিত খাবার তালিকায় লাল মাংস বাদ দিয়ে সামুদ্রিক মাছ রাখুন। তাতে শরীরে প্রয়োজনীয় প্রোটিনের চাহিদা পূরণ হবে এবং যৌবন ধরে রাখা যাবে বহুদিন।

 

স্ট্রবেরি

স্ট্রবেরি হোক কিংবা ব্ল্যাকবেরি, সবই আপনার শরীরের জন্য ভালো। এসব ফলে প্রচুর ভিটামিন-সি আছে, যা আপনার ত্বককে রাখবে সতেজ।

 

ফলমূল

ফলে আছে প্রচুর ফাইবার, ভিটামিন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যা শরীরে পুষ্টি জোগায় ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই যৌবন ধরে রাখতে চাইলে নিয়মিত ফল খান।

 

রসুন

রসুনে রয়েছে এলিসিন নামের উপাদান যা দৈহিক ইন্দ্রিয়গুলোতে রক্তের প্রবাহ বাড়ায়। দৈহিক সমস্যা থাকলে এখনই নিয়মিত রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads