• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
মিথ্যা তথ্য দিয়ে হাউজ বিল্ডিং থেকে ঋণ নিলে কঠোর শাস্তি

সংগৃহীত ছবি

সরকার

মিথ্যা তথ্য দিয়ে হাউজ বিল্ডিং থেকে ঋণ নিলে কঠোর শাস্তি

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২৬ আগস্ট ২০১৯

মিথ্যা তথ্য দিয়ে ঋণ নিলে কঠোর শাস্তি প্রদানের জন্য ‘বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং ফিন্যান্স করপোরেশন বিল ২০১৯’ এর খসড়া সোমবার মন্ত্রিসভা নীতিগতভাবে অনুমোদন দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘ইচ্ছাকৃতভাবে মিথ্যা তথ্য দিয়ে করপোরেশন থেকে ঋণ নেওয়ার জন্য শাস্তি পাঁচ বছরের কারাদণ্ড বা পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডের প্রস্তাব করা হয়েছে। যা আগে ছিল দুই বছরের জেল বা দুই হাজার টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ড।’

যদি কেউ কোনো বিজ্ঞাপন বা প্রসপেক্টাসে লিখিত অনুমোদন ছাড়া করপোরেশনের নাম ব্যবহার করে তাহলে তাকে ছয় মাসের কারাদণ্ড অথবা ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে। 

সচিব জানান, বিদ্যমান বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং ফিন্যান্স করপোরেশন অর্ডার ১৯৭৩ অনুযায়ী এই অপরাধের শাস্তি ছিল ছয় মাসের জেল বা মাত্র এক হাজার টাকা জরিমানা।

তিনি জানান, খসড়া বিলে, ‘ঋণ খেলাপি’, ‘করপোরেশনের চেয়ারম্যান’, এবং ‘পরিচালক’ সহ কয়েকটি শব্দ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

অন্যান্য আইনের তুলনায় এটিকে অগ্রাধিকার দেয়ার জন্য বিলে একটি সর্বোত্তম ধারা যুক্ত করা হয়েছে, বলেন তিনি।

শফিউল আলম বলেন, করপোরেশনের অনুমোদিত মূলধন ১১০ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে এক হাজার কোটি টাকা করা হয়েছে। পরিশোধিত মূলধন ১১০ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫০০ কোটি টাকা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads