• রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

শেষ পৃষ্ঠা

খুলনা বিএনপির সেই নেতা ছিলেন ‘আত্মগোপনে’

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৬ এপ্রিল ২০১৮

১৮ দিন পর সন্ধান মিলেছে খুলনা জেলা বিএনপির সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম মোড়লের; যাকে গুম করার আশঙ্কা করা হচ্ছিল। পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে কক্সবাজারের রামু উপজেলার খুনিয়া পালং ইউনিয়নের তুলাবাগান এলাকার এক বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশের ধারণা, পারিবারিক কলহের কারণে নজরুল সেখানে আত্মগোপনে ছিলেন। পরিবার ও দলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হচ্ছিল, তাকে গুম করা হতে পারে। এর সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জড়িত। এ অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে আসছিল পুলিশ।

পরিবারের ভাষ্যমতে, ১৭ মার্চ বিকালে ডুমুরিয়া উপজেলার মাগুরঘোনা ইউনিয়নের বেতাগ্রামের বাড়ি থেকে আঠারোমাইল বাজারে যান নজরুল। সেখান থেকে একটি মোটরসাইকেল ভাড়া নিয়ে যশোরের কেশবপুরের মঙ্গলকোট যান ডাক্তার দেখাতে। সন্ধ্যায় ডুমুরিয়ার আটালিয়া এলাকায় একটি ভাড়া করা মোটরসাইকেল, চাবি ও টুপি রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। এতে সন্দিহান পরিবারের সদস্যরা সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজ করেন। সন্ধান না পেয়ে রাতে তার স্ত্রী তানজিলা বেগম ডুমুরিয়া থানায় জিডি করেন। পরে তাকে ফিরে পেতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করার পাশাপাশি প্রশাসনকে স্মারকলিপিও দিয়েছে বিএনপি।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল জানান, নজরুল নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে করা জিডির সূত্র ধরে মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে রামুর তুলাবাগান এলাকার সিএনজি অটোরিকশা চালক আনোয়ার হোসেনের বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নজরুল আত্মগোপনে থাকার কথা স্বীকার করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের কারণে তার এই আত্মগোপন। রামু থানার ওসি লিয়াকত আলী জানান, সোর্সের মাধ্যমে তুলাবাগান এলাকায় খুলনার এক লোকের বসবাসের খবর পেয়ে জানতে পারেন, তিনি আসলে বিএনপির নিখোঁজ নেতা নজরুল। এ খবরের পর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে বৃহস্পতিবার সকালে তাকে উদ্ধার করা হয়। পরে দুপুর ১টার দিকে চট্টগ্রাম পাঠানো হয় খুলনার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করতে। ডুমুরিয়া থানার ওসি হাবিল হোসেন জানান, নজরুলকে আনতে তাদের একটি দল চট্টগ্রাম রওনা হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads