• মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭
ads
কাজকে সহজ করুন

ছবি : সংগৃহীত

জীবন ধারা

কাজকে সহজ করুন

  • এস. এ. মালিহা
  • প্রকাশিত ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

 

প্রতিনিয়ত কাজের চাপে ওষ্ঠাগত প্রাণ। কী ঘরে, কী অফিসে, কাজ যেন পিছু ছাড়ার নামটিই নেয় না। এত কাজের চাপে একটু অবসরের জন্য হাঁসফাঁস করতে থাকে মন। নারীদের জন্য এ অবসর যেন এক সোনার হরিণ। গৃহিণী যে নারী, তার সারা দিনই যায় ঘরকন্নার কাজে। অফিসের কাজ গুছিয়ে বাসায় ফিরেও সংসারের কাজে হাত লাগাতে হয় কর্মজীবী নারীটিকে। চাইলেই তো আর কাজ এড়িয়ে যাওয়া যাবে না। বরং এই কাজগুলোকেই  সহজ করে নেওয়ার ব্যবস্থা করা যায়। এতে করে কাজের চাপ কমিয়ে এনে উপভোগ করতে পারবেন কিছুটা অবসরও।  

·      প্রতিটি কাজের বেলায় নিজস্ব একটি পরিকল্পনা থাকা উচিত। পরিকল্পনা কাজকে যেমন সহজ করে দেয়, তেমনি সময় বাঁচায় অনেকখানি। যখন থেকে আপনি পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করতে শুরু করবেন, দেখবেন সারা দিনের কাজ যেন হঠাৎ করেই কমে গেছে।

·      কাজগুলো দৈনিক, সাপ্তাহিক, মাসিক- এভাবে ভাগ করে নিন। কাজের গুরুত্ব অনুযায়ী ভাগ করে নিলে কাজগুলো করতে সহজ হয়।

·      সারা দিন লাগাতার কাজ না করে কাজের সময় ভাগ করে নিন। প্রতিটি কাজের পরিকল্পনার সময় একটি ভারী কাজের পর একটি হালকা কাজ রাখুন। ফলে কাজে কোনো ক্লান্তি আসবে না। 

·      কাজের মাঝে হালকা বিনোদনের ব্যবস্থা রাখতে পারেন। গান শুনতে শুনতে কাজ করলে দেখবেন ক্লান্তি উবে গেছে এক নিমেষেই।

·      ঘরের কাজগুলোতে পরিবারের অন্যান্য সদস্যের মধ্যে ভাগ করে দিন। ছোট সদস্যদের তাদের নিজের কাপড় নিজেকে গোছানোর দায়িত্ব দিতে পারেন। এতে করে সে নিজের প্রতি দায়িত্ববান হয়ে উঠবে। পাশাপাশি একজনের ওপর কাজের চাপও কমে যায়।

·      প্রতিটি কাজ সম্পাদনের একটি নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। সঠিক নিয়ম মেনে কাজ করলে কাজে ক্লান্তি কম আসে। যেমন ঘর ঝাড়ু দেওয়ার সময় ঝুঁকে দাঁড়িয়ে ঝাড়ু দেওয়া ঠিক নয়। এতে করে কোমরে ব্যথা হতে পারে। খুব তাড়াতাড়ি কাজে ক্লান্তি চলে আসবে। এক্ষেত্রে নিয়ম হলো, লম্বা হাতলের ঝাড়ু ব্যবহার করা, যাতে সোজা হয়ে দাঁড়িয়েই সহজে কাজ করা যায়।

·      ঘরের কাজে বা অফিসে, কাজকে সহজ করতে চাইলে প্রয়োজনীয় সব জিনিস হাতের কাছেই গুছিয়ে রাখুন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads