• সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬
ads
ফিলিস্তিন ও চীনের মুসলিম নির্যাতন বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ

উইঘুর মুসলমানদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে গতকাল বায়তুল মোকাররম উত্তর গেট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

ছবি : বাংলাদেশের খবর

মহানগর

ফিলিস্তিন ও চীনের মুসলিম নির্যাতন বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৯ জানুয়ারি ২০১৯

ফিলিস্তিন ও চীনে মুসলিমদের নির্যাতন বন্ধ করতে বিশ্ব সম্প্রদারকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। গতকাল শুক্রবার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে সম্প্রতি চীন ও ফিলিস্তিনে মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে এক বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এ দাবি জানায় দলটির নেতারা।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, উত্তর সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, আলহাজ আবদুর রহমান, আলহাজ আলতাফ হোসেন, মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, মাওলানা আরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

বিক্ষোভে অংশ নিয়ে ইসলামী আন্দোলনের নেতারা বলেন, চীন তার দেশে প্রায় বিশ লাখ মুসলিম নারী-পুরুষ ও শিশুকে বিশেষ বন্দিশালায় আটকে নির্যাতন করছে। মুসলমানদের জোর করে কমিউনিস্ট দীক্ষা নিতে বাধ্য করছে। এটা সরাসরি মানবতাবিরোধী অপরাধ। চীন সরকারের এসব মানবতাবিরোধী অপকর্ম বন্ধে বিশ্ব বিবেককে জাগ্রত হতে হবে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে সোচ্চার হতে হবে। মুসলিম নির্যাতন বন্ধে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে তদন্ত টিম পাঠিয়ে চীনকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে।

তারা বলেন, জাতিসংঘ মুসলমানদের জন্য কোনো ভূমিকা রাখবে না। মুসলিম জাতিসংঘ গঠন করে নির্যাতিত মুসলিমদের পক্ষে দাঁড়াতে হবে। তিনি মুসলিম সেনাবাহিনী গঠনের প্রস্তাব করায় এরদোগানকে ধন্যবাদ জানান। একইভাবে ইসরাইল ফিলিস্তিনে স্বাধীনতা আন্দোলনকে স্তিমিত করার জন্য আন্তর্জাতিক রীতিনীতি ও মানবাধিকার লঙ্ঘন করে চলছে। ইসরাইলের জঘন্য ও অমানবিক আচরণের বিরুদ্ধে বিশ্ব মুসলিমকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্বান জানান তারা। সমাবেশ শেষে একটি মিছিল বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads